ফেসবুকে আন্দোলন নিয়ে নানা গুজব!

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০১৮, ১৯:১৩ | আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০১৮, ২২:০৫

অনলাইন ডেস্ক

নিরাপদ সড়কের দাবিতে সড়কে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ফেসবুকসহ ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা গুজবও ছড়াচ্ছে। শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের হামলার পুরনো ছবি ঘুরছে ইন্টারনেটে; আবার পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে, এমন শিক্ষার্থীর নাম আসার পর ওই শিক্ষার্থীরাই তা গুজব বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন। 

এক ছাত্রের কলার ধরে আছেন এক পুলিশ সদস্য— এ রকম একটি ছবি গত কয়েকদিন ধরে ঘুরছে ফেসবুকে, যা দেখে সরকারবিরোধী রাজনৈতিক নেতাদের মধ্য থেকেও প্রতিবাদ এসেছে, অথচ ওই ছবিটি ২০১৫ সালের আরেক ঘটনার। 

এর মধ্যে আফজাল হোসেন রহিম নামের একটি ফেসবুক পাতা থেকে বলা হয়, খিলগাঁওয়ের এক কলেজছাত্রকে পুলিশ বাসা থেকে ধরে নিয়ে গেছে।  এই খবরটি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ওই কলেজছাত্র তার ফেসবুকে পাতায় এই ঘটনাটি মিথ্যা বলে জানান। ওই ছাত্র লিখেছেন, আপনারা উল্টাপাল্টা নিউজ কই থেকে পান আর এইসব আপলোড দিয়ে আমাকে আর ফ্যামিলিকে বিরক্ত করছেন কেন? এটা পুরো ফেইক ঘটনা; পুলিশ আমাকে ধরেনি।  

ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের ৪৭ শিক্ষার্থীকে কলেজ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে বলেও ফেসবুকে অনেকের স্ট্যাটাসে এসেছে। এ ধরনের খবরকে ‘ভিত্তিহীন ও বিভ্রান্তিকর’ দাবি করে তার নিন্দা জানিয়েছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। 

তারা বলেছে, গত ১ আগস্ট কিছু সংখ্যক আবাসিক ছাত্র অনুমতি ছাড়া কলেজের বাইরে যাওয়ায় কর্তৃপক্ষ তাদের নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিল। ওই ছাত্রদের অভিভাবকদের ডেকে আনা হয় এবং ‘শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তার ব্যাপারে মোটিভেশনের’ উদ্দেশে অভিভাবকরা তাদের সন্তানদেরকে সাময়িকভাবে বাসায় নিয়ে যান। কলেজ কর্তৃপক্ষ কাউকে টিসি প্রদান করেনি, মোটিভেশন শেষে সংশ্লিষ্ট ছাত্ররা ইতোমধ্যে বাসা থেকে হাউসে প্রত্যাবর্তন শুরু করেছে বলা হয় বিবৃতিতে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা ধরনের গুজব চলার কথা তুলে ধরে বিভ্রান্ত না হতে সবাইকে সতর্ক করেছে পুলিশও।

পিডিএসও/তাজ