শেষ মুহূর্তে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ বাতিল

প্রকাশ : ১১ মে ২০১৮, ০৫:০৪ | আপডেট : ১১ মে ২০১৮, ১১:০৮

অনলাইন ডেস্ক

অনাকাঙ্ক্ষিত যান্ত্রিক সমস্যার কারণে শেষ মুহূর্তে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর উৎক্ষেপণ বাতিল করা হয়েছে। অনেক অপেক্ষা আর উত্তেজনার মধ্যে কোটি মানুষ অপেক্ষা করছিল ইতিহাসের সাক্ষী হওয়ার। তাদের অপেক্ষা সময় হলো আরেকটু দীর্ঘ। বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট (কৃত্রিম উপগ্রহ) বঙ্গবন্ধু-১ শুক্রবার ভোররাত ৩টা ৪৭ মিনিটে উৎক্ষেপণের কথা থাকলেও শেষ মুহূর্তে কয়েক সেকেন্ড আগে উৎক্ষেপণ স্থগিত করা হয়েছে। সব প্রস্তুতি সেরে উৎক্ষেপণের প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছিল; কিন্তু মিনিট খানেক আগে যান্ত্রিকত্রুটি দেখা দেওয়ায় স্যাটেলাইটটি আর ওড়েনি লঞ্চ প্যাড থেকে। ফলে ২৪ ঘণ্টার জন্য পিছিয়ে গেল স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণটি। তবে শুক্রবার দিবাগত রাত ২টা ১৪ মিনিটে বঙ্গবন্ধু-১ উৎক্ষেপণের নতুন সময় ঠিক করা হয়েছে বলে স্পেসএক্সের ওয়েবসাইটের সরাসরি সম্প্রচারে কথা বলা হয়েছে। 

এদিকে কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ বলেন, উৎক্ষেপণের ঠিক দুই মিনিট আগে এটি কম্পিউটারের কন্ট্রোলে চলে যায়। হয়ত কিছু সমস্যায় আপতত উৎক্ষেপণ স্থগিত করা হয়েছে। শুক্রবার ঠিক একই সময় পুনরায় উৎক্ষেপণের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। 

ফরাসি প্রতিষ্ঠান তালিস এলিনিয়া স্পেসের তৈরি বাংলাদেশের জাতির জনকের নামাঙ্কিত লাল-সবুজ পতাকা রঙের নকশার এই স্যাটেলাইটটি উৎক্ষেপণ হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের বেসরকারি মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেসএক্সের মাধ্যমে। 

স্পেসএক্স তাদের ওয়েবসাইটে জানিয়েছে, শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ২টা ১৪ থেকে ৪টা ২১ মিনিটের মধ্যে উৎক্ষেপণের নতুন সময় ঠিক করা হয়েছে। কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চ প্যাড ৩৯ এ থেকে এটি উৎক্ষেপণ হচ্ছে, এই প্যাড থেকেই মানুষকে নিয়ে চাঁদে রওনা হয়েছিল চন্দ্রযান অ্যাপোলো-১১। 

উৎক্ষেপণ দেখতে কেনেডি স্পেস সেন্টারে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।টেলিযোগাযোগ বিভাগের সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবং বর্তমান তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রায় ৩০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল, জুনাইদ আহমেদ পলকের পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদও ছিলেন সেখানে।

পিডিএসও/মুস্তাফিজ