সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ওয়েবসাইট হ্যাক

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ০৯:০৭ | আপডেট : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ১০:৪৩

অনলাইন ডেস্ক

কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনের মধ্যে সরকারের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি ওয়েবসাইট হ্যাকারের কবলে পড়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক দাবি করেছেন, বিদেশ থেকে পরিকল্পিতভাবে মঙ্গলবার রাতে এই সাইবার হামলা চালানো হয়।

ফেসবুকে আসা বিভিন্ন পোস্ট থেকে জানা যায়, রাত সাড়ে ১০টার পরে কোনো একসময় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ দফতরের ওয়েবসাইটের হোম পেজ বদলে দেয় হ্যাকাররা। সেখানে বসিয়ে দেয় কোটা সংস্কার আন্দোলনের বার্তা। রাতেই ওয়েবসাইটগুলো পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া শুরু হয় এবং বুধবার সকালের মধ্যে ওয়েবসাইটগুলো স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরে।  

ফেসবুকে সাইবার হামলার পোস্ট দেখে গতকাল মধ্যরাতে যারা রাষ্ট্রপতির কার্যালয়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের ওয়েবসাইটে ঢোকার চেষ্টা করেছেন, তারা এরর মেসেজ দেখতে পেয়েছেন। তবে রাত ১২টার দিকে গুগলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নাম দিয়ে সার্চ দেওয়া হলে এই ওয়েবসাইটটি আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি স্পষ্ট হয়।

হ্যাকাররা ওয়েবসাইটগুলো হ্যাক করার পর স্ক্রিনে হ্যাকড বাই বাংলাদেশ লেখা ঝুলিয়ে দেয়। সেইসঙ্গে কোটা সংস্কারের দাবিতে বিভিন্ন বক্তব্যও ছিল। নিয়মিত ভিত্তিতে আক্রান্ত ওয়েবসাইটের তালিকা প্রকাশকারী সাইবার নিরাপত্তাবিষয়ক পোর্টাল জোন এইচের আর্কাইভে রাত ১২টা পর্যন্ত বাংলাদেশের চারটি সরকারি ওয়েবসাইট হ্যাকারের কবলে পড়ার তথ্য আসে।

পিডিএসও/হেলাল