‘কটাক্ষ করার ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন প্রধান বিচারপতি’

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৭, ১৭:৫৭

অনলাইন ডেস্ক

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন (এলজিআরডি) ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে মাননীয় প্রধান বিচারপতি যে রায় দিয়েছেন, তাতে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটাক্ষ করার ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন।’ তিনি এর ধিক্কার জানান।

শুক্রবার দুপুরে মাদারীপুরের শিবচরে শেখ হাসিনা সড়ক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এই রায়ে বিভিন্ন অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় আছে উল্লেখ করে এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ‘অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে হয়, প্রধান বিচারপতি যে রায় দিয়েছেন, তাতে ব্যাপকভাবে অসাংবিধানিক ও অনৈতিক কথাবার্তা বলেছেন। যেসব অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় রায়ে উল্লেখ আছে, তা পুনর্বিবেচনা করেন। জনগণের মনে দুঃখ দিয়ে কোনো বিচারকার্য সম্ভব নয়। যদি কোনো দেশের বিচারব্যবস্থার ওপর মানুষের আস্থার সংকট দেখা দেয়, সে দেশ কিন্তু প্রলয়ংকরী বিপদের মধ্যে পড়ে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের মনে আঘাত দিয়ে উপযাচক হয়ে কোনো রকম বিচারব্যবস্থার বিচারের রায় হয় না। আমরা সনির্বন্ধভাবে আপনাদের প্রতি অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে, শ্রদ্ধার সঙ্গে অনুরোধ, যেসব অনাকাঙ্ক্ষিত বিষয় এই রায়ের মধ্যে আছে, আপনারা এর পুনর্বিবেচনা করেন। কারণ বিচারব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হোক বাংলার জনগণ তা চায় না। বিচারব্যবস্থা হলো জনগণের শেষ আশ্রয়স্থল।’

মোশাররফ হোসেন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আরও দুই মেয়াদে শেখ হাসিনার সরকারকে ক্ষমতায় রাখতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য নুর-ই-আলম চৌধুরী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান, স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী শ্যামাপ্রসাদ অধিকারী, জেলার সহকারী পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন ভুইয়া প্রমুখ।

পিডিএসও/রিহাব