‘খেলা হবে আওয়ামী লীগ বনাম বিএনপির’

প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০১৭, ২০:০৯ | আপডেট : ১০ আগস্ট ২০১৭, ২০:১৩

অনলাইন ডেস্ক

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন,  ‘নির্বাচন যথা সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই অনুষ্ঠিত হবে। আপনাদের (বিএনপি) বলি নির্বাচনে অংশ নিবেন ঠিক আছে। কিন্তু মাঝ পথ থেকে পালিয়ে যাবেন না। জনগণ যে রায় দিবে আমরা মেনে নেব।’

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু ও ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিএনএফের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ এমপি সভাপতিত্ব করেন।

আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করতে খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘যে যত ফর্মূলা দেন না কেন। নির্বাচন কালীন সরকার বাংলাদেশে আর ফিরে আসবে না। তাই বিএনপিকে বলি নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করুন। খেলা হবে আওয়ামী লীগ বনাম বিএনপির। রেফারি হিসেবে নির্বাচন পরিচালনা করবে কমিশন।’
 
হাওয়া ভবন, জঙ্গিমুক্ত, ৭১-এর ঘাতক মুক্ত বাংলাদেশে চাইলে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘২০১৯ সালের নির্বাচন হবে। সেই নির্বাচনে আপনাদেরই ঠিক করতে হবে আপনারা কেমন বাংলাদেশ চান? বাংলাদেশ ঘাতক, সন্ত্রাসী ও হাওয়া ভবন সৃষ্টিকারীদের হাতে চলে যাবে না, যারা দেশকে উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তাদের হাতে থাকবে। ’

মোহাম্মদ নাসিম আরো বলেন, ‘নির্বাচনে জনগণ যদি আগামীতে ভুল করে তাহলে এই দেশ জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও ৭১-এর ঘাতকদের হাতে চলে যাবে। দেশ অন্ধকারের পথে চলে যাবে। তাই জনগণকে ভুল করা যাবে না। জনগণকে বলি আগামী নির্বাচনে আপনারা ভুল করে দেশকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিবেন না।’

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় কিডনি ইনস্টিটিউট এবং হাসপাতাল আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করেন। শোক দিবস পালন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ডা. রফিকুল আবেদিনের সভাপতিত্বে সভায় স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জমান খাঁন কামাল বক্তব্য দেন। 

এ সময়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘দেশে একটি গোষ্ঠী আছে যখন দেখছে সরকার উন্নয়ন করছে, তখন এই সরকারকে ঠেকাতে হবে তারা এই স্লোগান নিয়ে মাঠে নেমেছে। চক্রান্ত শুরু হয়েছে। জখন সফলতা আসে তখন চক্রান্ত শুরু হয়। তাই আমাদেরও সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’

পিডিএসও/রিহাব