সংসদে দাঁড়িয়ে ক্ষমা চাইলেন রাঙ্গা

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২০:১৪

সংসদ প্রতিবেদক

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শহীদ নূর হোসেন নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যের জন্য সংসদে দাঁড়িয়ে ক্ষমা চাইলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা।

তিনি বলেছেন, আমি ক্ষমা চাচ্ছি। আমার কলিগরা আমার এটা শুনে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আর প্রধানমন্ত্রী আমাকে প্রতিমন্ত্রী বানিয়েছেন, হয়তো আমার দল ক্ষমতায় থাকলেও মন্ত্রী হতে পারতাম না।

বুধবার রাতে সংসদ অধিবেশনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে কার্যপ্রণালী বিধির ২৭৪ বিধিতে ব্যক্তিগত কৈফিয়ত সম্পর্কিত ধারায় তিনি একথাগুলো বলেন।

গত রোববার দুপুরে জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে আলোচনা সভায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, ইয়াবাখোর ফেনসিডিলখোর ছিলেন নুর হোসেন। তাকে নিয়ে নাচানাচি করছে আওয়ামী লীগ বিএনপি। তাদের কাছে ইয়াবা-ফেন্সিডিলখোর ও ক্যাসিনো ব্যবসায়ীদের গুরুত্ব বেশি।

এরশাদ সাহেবের কাছে এরা কোনো গুরুত্ব পাননি। যারা গণতন্ত্রের গ ও বুঝে না, অ্যাডিক্টেড একটি ছেলে নুর হোসেন। পুলিশ গুলি করলো সামনে থেকে আর ঘুরে গিয়ে পেছন থেকে লাগল। কি হাস্যকর যুক্তি!

রাঙ্গার এমন বক্তব্যে দেশজুড়ে শুরু হয় সমালোচনা। এরপর নূর হোসেনকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য এক লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মঙ্গলবার নূর হোসেনের পরিবারসহ সকলের কাছে ক্ষমা চান জাতীয় পার্টির মহাসচিব মো. মশিউর রহমান রাঙ্গা।

পিডিএসও/তাজ