বৃহত্তর ঐক্য গড়তে চায় ২০ দলীয় জোট

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৯, ০৯:০০

অনলাইন ডেস্ক
২০ দলীয় জোটের ইফতারে শীর্ষ নেতারা

গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য সমমনা রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য গড়তে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে ২০ দলীয় জোট। এ ছাড়া জোটগত কর্মসূচি পালনের বিষয়েও সিদ্ধান্ত হয়েছে জোটের বৈঠকে।

সোমবার বিকেলে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে ২০ দলের বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে ২০ দলের সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।

নজরুল ইসলাম বলেন, দল ভাঙবে না বরং দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে জোটের পরিসর আরো বাড়বে। ২০ দলীয় জোট বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে কর্মসূচি দেবে এবং দ্রুতই প্রেসক্লাবের সামনে একটি কর্মসূচি ঘোষণা করা করবে। কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্যের দাবি এবং কৃষি উপকরণের মূল্য কমানোর দাবিতে সারাদেশে কর্মসূচি দেবে তারা। এ ছাড়া প্রতিমাসে ২০ দলীয় জোটের একটি বৈঠক করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বিজেপি চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থের জোট ত্যাগের বিষয়ে নজরুল ইসলাম খান বলেন, তার মান-অভিমান থাকতেই পারে। তবে আশা করি ভুল-ত্রুটি সংশোধন হয়ে সেটা ঠিক হয়ে যাবে। পার্থ ২০ দলে ফিরে আসবে।

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের জোট ছাড়ার হুমকির বিষয়ে নজরুল ইসলাম বলেন, ডা. ইরান আজকের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। তিনি আমাদের বলেছেন এ ধরনের কথা তিনি বলেননি। এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সংবাদ প্রকাশের আগে সতর্ক হয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

গত ৬ মে ২০ দলের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমান পার্থ জোট ছাড়ার ঘোষণা দেন। তিনি আজকের বৈঠকে উপস্থিতও ছিলেন না। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে নজরুল ইসলাম খান বলেন, একটা ভুল বোঝাবুঝি ছিল। তবে তিনি আশা করেন আন্দালিব রহমান ফিরে আসবেন।

ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে ২০ দলের কোনো বিরোধ আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ২০ দলের সমন্বয়ক বলেন, ২০ দলের অনুমতি নিয়েই ঐক্যফ্রন্ট গঠন করা হয়েছে। ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে ২০ দলের কোনো বিরোধ নেই।

পিডিএসও/হেলাল