শেষ পর্যন্ত কারা হচ্ছেন নৌকার মাঝি

মনোনয়ন কিনেছেন ৪০২৩ জন, শুধু ৭ আসনে একজন করে

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৭

কাইয়ুম আহমেদ
আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা কার্যক্রম শেষ হয়েছে। নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দলটির মনোনয়ন ফরম কিনেছেন ৪০২৩ জন। দেশের ৮টি বিভাগ থেকে ৩০০ আসনেই মনোনয়ন-প্রত্যাশীরা ফরম নিয়েছেন এবং জমা দিয়েছেন। তবে জোট সমীকরণের কারণে অনেক আসনই ছাড় দিতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে অনেক নেতাই বাদ যাবেন। তবে কারা নৌকার মাঝি হচ্ছেন সেটা জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। কাল বুধবার মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলবেন দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা। এরপর মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে চূড়ান্ত হবে একাদশ সংসদ নির্বাচনে নৌকার মাাঝি।

গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের ফরম বিতরণের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। তবে জমা নেওয়া হয় রাত ৭টা পর্যন্ত। আজ মঙ্গলবারও মনোনয়ন ফরম জমা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। শেষ দিনেও উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জামা দিয়েছেন আগ্রহী প্রার্থীরা। এই মনোনয়ন সংগ্রহ করতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা আওয়ামী লীগের হাজারো নেতাকর্মীর পদচারণায় মুখর ছিল ধানমন্ডির ঝিগাতলায় আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় এলাকা। নানা রঙের ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে শোডাউনের মাধ্যমে দলের মনোনয়ন কেনেন প্রত্যাশীরা।

গত শুক্রবার সকাল ১০টায় ঢাকার ধানমন্ডিতে দলীয় সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা নেওয়া চলে। শুক্রবার প্রথম দিনে ১৩২৯, দ্বিতীয় দিন শনিবার ১১৩২, রোববার ৮৩৫ মনোনয়ন কিনেছেন প্রত্যাশীরা। আর চতুর্থ দিন গতকাল সোমবার ৭২৭ জনসহ ৪ দিনে ৪০২৩ জন মনোনয়ন কিনেছেন। প্রতিটি ফরমের দাম ৩০ হাজার টাকা। এ হিসাবে ১২ কোটি ৬ লাখ ৬০ হাজার টাকার মনোনয়নপত্র বিক্রি করেছে দলটি। তবে মনোনয়ন গ্রহণকারী জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রতি সম্মান দেখিয়ে তার কাছ থেকে মনোনয়নের টাকা নেয়নি দলটি।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ নভেম্বর বেলা ১১টায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সঙ্গে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার হবে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পেছানোর দাবির বিষয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন পেছানোর ব্যাপারে দাবি থাকলে তা নির্বাচন কমিশনের (ইসি) এখতিয়ার। নির্বাচন কমিশন যদি সময় বাড়াতে চায়, সেখানে আওয়ামী লীগের আপত্তি থাকবে না। জোটের আসন ভাগাভাগির বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, নৌকা প্রতীকে ১৪ দল এবং লাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টি নির্বাচন করবে। নৌকা প্রতীক ১৪ দলের মধ্যে সীমিত থাকবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনে জিততে পারেন—এমন গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের মনোনয়ন দেওয়া হবে। নিজেদের অগ্রহণযোগ্য প্রার্থীদেরও মনোনয়ন দেওয়া হবে না। নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপির প্রার্থীদের বিরুদ্ধে আমাদের লড়তে হবে। তাদের দুর্বল মনে করলে চলবে না। জিততে পারেন ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থীদের বিষয়ে অনেক সার্ভে করা হয়েছে।’

সাতটি আসনে একজন করে : সারা দেশে সাতটি আসনে আওয়ামী লীগের একটি করে মনোনয়ন বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের আসন রয়েছে। শুক্রবার সকালে শেখ হাসিনার জন্য দুটি মনোনয়ন কেনার মধ্যে দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। এর মধ্যে একটি ফরম কেনা হয় শেখ হাসিনার নিজের আসনের (গোপালগঞ্জ-৩, টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়া) জন্য। ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জ-৩ আসনের পাশাপাশি তার শ্বশুরবাড়ির এলাকা রংপুরের পীরগঞ্জ আসনে নির্বাচিত হন। পরে তিনি এ আসনটি ছেড়ে দিলে উপনির্বাচনে এমপি হন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। এবারও শিরীন শারমিন চৌধুরী এ আসনের জন্য মনোনয়ন কিনেছেন।

নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ) আসনে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আর কেউ মনোনয়ন ফরম কেনেননি। গোপালগঞ্জ-২ আসনে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বাদে আর কেউ মনোনয়নপত্র কেনেননি। বরিশাল-১ (গৌরনদী) আসনেও একক মনোনয়নপ্রত্যাশী দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ। বাগেরহাট-১ আসনে শেখ হেলাল উদ্দিন এবং খুলনা-২ আসনে শেখ সালাহ উদ্দীন জুয়েল একমাত্র মনোনয়নপ্রত্যাশী। আর মৌলভীবাজার-১ (কুলাউড়া) আসন থেকে শাহাবুদ্দিন আহমেদ একমাত্র ব্যক্তি হিসেবে মনোনয়ন নিয়েছেন। তিনি বর্তমানে সংসদের হুইপ।

এক পরিবার থেকে অনেক : আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহকারীদের মধ্যে অনেকেই পরস্পরের আত্মীয়। সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম অসুস্থ থাকায় কিশোরগঞ্জ সদর আসনে তার জন্য নেওয়ার পাশাপাশি তার তিন ভাইও মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন।

সিলেট-১ আসন থেকে নির্বাচনের জন্য অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও তার ভাই এ কে মোমেন মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ ফরম কিনেছেন কুষ্টিয়া-৩ আসন থেকে। তার ভাই রশিদুল আলম কিনেছেন কুষ্টিয়া-১ ও কুষ্টিয়া-২ আসনের জন্য। সিরাজগঞ্জ-১ আসন থেকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এবং তার ছেলে তানভীর শাকিল জয় ফরম কিনেছেন। চাঁদপুর-২ আসনে ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এবং তার ছেলে সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

টাঙ্গাইল-২ (ভূঞাপুর-গোপালপুর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য খন্দকার আসাদুজ্জামান, তার ছেলে মশিউজ্জামান রোমেল দুজনেই মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। আসাদুজ্জামান বর্তমানে অসুস্থ।

হাজী মোহাম্মদ সেলিম অসুস্থ থাকায় ঢাকা-৭ আসনে তার পাশাপাশি ছেলে সোলায়মান সেলিমও মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে একই পরিবারের কয়েকজন মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। তারা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি শহীদ মমতাজ উদ্দীন, তার ছোট ভাই বর্তমান সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদ, আরেক ভাই শহীদ মমতাজ উদ্দীনের স্ত্রী ও সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য শেফালী মমতাজ, শেফালী মমতাজের ছেলে ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক শামীম আহম্মেদ সাগর।

নাটোর-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য ও নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল কুদ্দুস এবং তার মেয়ে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে একই পরিবারের তিন ভাইবোন মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। তাদের একজন বর্তমান সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। তার বড় ভাই রামু উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজলও বসে নেই। অন্যদিকে তাদের ছোট বোন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনিন সরওয়ার কাবেরীও মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

পাবনা-৪ আসনে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর পাশাপাশি তার মেয়ে মাহাজাবিন শিরিন পিয়া ও তার স্বামী আবুল কালাম পিন্টুও মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

দলের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্য থেকে ৩০০ আসনে প্রার্থী বাছাইয়ে কাল বুধবার সাক্ষাৎকার নেওয়া শুরু করবে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড। সাক্ষাৎকার নেবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সাক্ষাৎকার ঢাকার ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে হবে।

পিডিএসও/হেলাল