শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়কের আন্দোলন

আন্দোলনে বিএনপি-জামায়াতের অনুপ্রবেশ ঘটেছে : কাদের

প্রকাশ : ০৩ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৪০

অনলাইন ডেস্ক

সারাদেশে নিরাপদ সড়কের আন্দোলনে বিএনপি-জামায়াতের অনুপ্রবেশ ঘটেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘কোমলমতি শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনে বিএনপি-জামায়াত ও তাদের সাম্প্রদায়িক শক্তি সওয়ার হয়েছে। ভিন্ন রাজনৈতিক উদ্দেশে যৌক্তিক আন্দোলনকে তারা অযৌক্তিক পথে নিয়ে যেতে চাচ্ছে।’ কোনো অপশক্তির উসকানিতে বিভ্রান্ত না হতে তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

আজ শুক্রবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে যৌথসভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন। দলের সম্পাদকমণ্ডলীর সঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ, ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলরসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাদের এই যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

গত পাঁচ দিনের আন্দোলন পরিস্থিতি তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে অনুপ্রবেশ ঘটেছে। আমরা তার ‘সিমটম’ দেখতে পাচ্ছি। বিএনপি-জামায়াত ও তার সাম্প্রদায়িক শক্তি গত পাঁচ বছরে পাঁচ মিনিটও আন্দোলন করতে পারেনি। কোটাবিরোধী আন্দোলনের ওপর ভর করেও সফলতা পায়নি। তারা এখন এই কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ওপর সওয়ার হয়েছে।

আমরা আন্দোলনের পাঁচ দিনে এসব চক্রান্ত লক্ষ করেছি। যৌক্তিক আন্দোলনের মধ্যে রাজনৈতিক মতলবিগোষ্ঠী বিশ্রী ও অশালীন স্লোগানে উসকানি দিচ্ছে। খাবার ও পানি সরবরাহ করছে। তাদের উত্তেজিত করে আন্দোলন চালিয়ে যেতে উসকে দিচ্ছে। প্রলোভিত করছে। এই মহল সন্ধ্যার পর তৎপর হয়।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আন্দোলনে আমাদের অনেক মন্ত্রী-এমপিকে নাজেহাল করা হয়েছে। অনেক পুলিশ কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষ অপদস্থ হয়েছে। তবে আমরা মনে করি না এসব শিক্ষার্থীরা করেছে। এসব অনুপ্রবেশকারী ও মতলববাজরা করেছে। বুঝতে পেরে শিক্ষার্থীরাও তাদের অনেককে বের করে দিয়েছে।’

সড়ক পরিবহন আইনের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবি বাস্তবায়নে আইনের কঠোর প্রয়োগ জরুরি। এ কারণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আইন মন্ত্রণালয় আগামী সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে সড়ক পরিবহন আইন উত্থাপন করবে। সেটি বিল আকারে পাস হবে। এরপরে এই সরকারের শেষ অধিবেশন সম্ভবত সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে এ আইনটি পাস হবে। শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণে সরকারের আন্তরিকতার কোনো ঘাটতি নেই।’

পিডিএসও/তাজ