আসলাম চৌধুরীর ১৫০ কোটি টাকা আত্মসাৎ!

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০১৮, ১৮:৪১

অনলাইন ডেস্ক

বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব আসলাম চৌধুরী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে প্রায় ১৫০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চার্জশিট দাখিল হচ্ছে। মঙ্গলবার দুর্নীতি দমন কমিশন– দুদক এই চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দিয়েছে।

দুদকের উপ-পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আসলাম চৌধুরী চট্টগ্রামভিত্তিক রাইজিং গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রাইজিং অ্যাগ্রো ফার্মা এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও রাইজিং স্টিল মিলস লিমিটেড এর জামিনদার।
তিনি ছাড়া অভিযুক্ত তিন কর্মকর্তা হলেন- রাইজিং স্টিল মিলস লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টর আমজাদ হোসেন চৌধুরী, একই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান জামিলা নাজলিন মাওলা ও পরিচালক মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী।

এর মধ্যে জামিলা নাজলিন মাওলা আসলাম চৌধুরীর স্ত্রী। আর আমজাদ হোসেন চৌধুরী তার ছোট ভাই।

দুদক বলছে, পরস্পর যোগসাজশে এই চারজন চট্টগ্রামের সাউথ ইস্ট ব্যাংকের হালিশহর শাখা থেকে ২০১০ ও ২০১২ সালে এলসি (ঋণপত্র) খুলে এলটিআর সুবিধা নিয়ে ১৫৩ কোটি টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। যার নং ছিল ১৩৩৬/১০/০১/০১৪৬ ও ১৩৩৬/১২/০১/০৩১৫। ২০১০ সালের এপ্রিল ও ২০১২ সালের আগস্টে এই ঋণ গ্রহণ করা হয়।

প্রণব কুমার জানান, পরে সুদসহ ঋণের অনাদায়ী ২৩৭.৫২ কোটি টাকার মধ্যে ৮৮.৩২ কোটি টাকা পরিশোধ করা হয়। অবশিষ্ট ১৪৯.২০ কোটি টাকা পরিশোধ না করে ব্যাংকের সঙ্গে প্রতারণা করে অপরাধমূলক বিশ্বাস ভঙ্গের মাধ্যমে আত্মসাৎ হয়েছে। এজন্য ওই ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারায় চার্জশিট দাখিলের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এর আগে ২০১৬ সালের ২৬ ডিসেম্বর কমিশনের উপপরিচালক মোঃ মোশারফ হোসেইন মৃধা বাদী হয়ে এ বিষয়ে হালিশহর (সিএমপি) থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন; যার নং-২৫। তিনিই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। শিগগিরই সংশ্লিষ্ট আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হবে।

আসলাম চৌধুরী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালে এবি ব্যাংকের আগ্রাবাদ শাখা থেকে তিনটি ঋণপত্রের বিপরীতে ৩৭৭ কোটি টাকা নিয়ে তার বড় অংশ আত্মসাতের অভিযোগ আছে।

পিডিএসও/রিহাব