গাজীপুর সিটি নির্বাচন

‘সন্ত্রাস-পেশি শক্তিমুক্ত করতে সেনাবাহিনী মোতায়েন দরকার’

প্রকাশ : ২৩ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:০২

নাঈমুল হাসান, টঙ্গী(গাজীপুর)

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সাত দিন আগে প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি প্রার্থী মেয়র হাসান উদ্দিন সরকার। এছাড়াও তিনি বলেন, এলাকার ভোটাররা নির্বিঘ্নে যাতে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদেরকে দৃশ্যমানভাবে নাম ও র‌্যাঙ্ক ব্যাজসহ ইউনিফর্ম পরে দায়িত্ব পালন করতে হবে। সাদা পোশাকে আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের ডিউটিতে না পাঠাতে আহ্বান জানাচ্ছি।

সোমবার দুপুরে টঙ্গী আউচপাড়াস্থ হাসান সরকারের বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এ দাবি জানান। 

তিনি বলেন, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে সন্ত্রাস ও পেশি শক্তির প্রভাবমুক্ত নির্বাচনী পরিবেশ তৈরি করতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতি জনগণের পূর্ণ আস্থা রয়েছে। প্রশাসনের নিরপেক্ষতা চাই।

নির্বাচনের সময় এলাকায় কালো টাকার ছড়াছড়ি দেখা যায়। ভোটারদের কালো টাকার বিনিময়ে যাতে প্রভাবিত করতে না পারে সে দিকে কড়া নজর রাখতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান হাসান সরকার।

তিনি বলেন, নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে হলে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির কোনো দলীয় নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি না করার আহব্বান জানান তিনি। এছাড়া নির্বাচনের সময় ব্যালট পেপার ও বাক্স চুরি এবং ভোট কেন্দ্র ও আশপাশে অস্ত্রের মহড়া বন্ধ করার কথাও বলেন হাসান সরকার।

হাসান সরকার বলেন, ভোটের দিন স্থানীয় প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ যাতে নির্বিঘ্নে সংবাদ সংগ্রহ করতে পারে সেই ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দিষ্ট তারিখের ৭দিন পূর্ব হতে নির্বাচনী এলাকায় টহলসহ প্রতিটি ভোটকেন্দ্রে অবশ্যই সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে।

হাসান উদ্দিন সরকার আরও বলেন, নির্বাচনী কর্মকর্তা বা ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাগণের প্যানেল প্রস্তুতের সময় স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে দল নিরপেক্ষ কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে প্যানেল তৈরি করতে হবে। বিতর্কিত কর্মকর্তাদের প্যানেলভুক্ত না করার আহ্বান জানাচ্ছি। 

মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি ফজলুল হক মিলন, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়েদুল আলম বাবুল, গাজীপুর জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার, যুগ্ম-সম্পাদক শিল্পপতি সোহরাব উদ্দিন, ডা: মাজহারুল আলম, মাওলানা নাসির উদ্দিন, আজিজুল হক রাজু মাস্টার, আব্দুর রহিম খান কালা প্রমুখ।

জাসদ প্রার্থীর প্রত্যাহার জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন:
অপর দিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ সমাজ তান্ত্রিক দল (জাসদ) এর মনোনীত মেয়র প্রার্থী গাজীপুর মহানগর এর  সভাপতি রাশেদুল হাসান রানা রোববার বিকালে মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে ১৪দল সমর্থিত আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দেন। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক নাদের চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন-সাধারনণ সম্পাদক শওকত রায়হান, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জ মো:আনোয়ারুল হক, গাজীপুর মহানগর সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক খান সোহেল, মহানগরা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইলিয়াস আহমেদ, অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন মহি প্রমূখ। 

পিডিএসও/রিহাব