শোক দিবসে ধানমণ্ডিতে কড়া নিরাপত্তা

প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৭, ১৩:০৩ | আপডেট : ১৩ আগস্ট ২০১৭, ১৩:১৩

অনলাইন ডেস্ক
ফাইল ছবি

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে কয়েক স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। রোববার বেলা ১১টার দিকে ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু জাদুঘর এলাকা পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের সামনে নিরাপত্তা প্রস্তুতির বিস্তারিত তুলে ধরেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, শোক দিবসে ৩২ নম্বরসহ আশপাশের এলাকায় পর্যাপ্তসংখ্যক সিসিটিভি ক্যামেরা থাকবে। বেশ কয়েকটি নিরাপত্তা স্তর পেরিয়ে জাদুঘরে ঢুকতে হবে। ধানমণ্ডি লেকে নৌপুলিশ ও ফায়ার ব্রিগেডের টহল থাকবে। ডগ স্কোয়াড, বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও সোয়াত টিমও সার্বক্ষণিক প্রস্তুত থাকবে। মঙ্গলবার সকালে যারা ৩২ নম্বর এলাকায় আসবেন তাদের ট্রলি ব্যাগ, টিফিন ক্যারিয়ার, ফ্লাস্ক, ছুরি, চাকু-কাঁচি ও লাইটার বহন না করতে অনুরোধ জানান তিনি। 

রাসেল স্কয়ার থেকে সোবহানবাগ মসজিদ পর্যন্ত মোটরসাইকেল পার্কিং নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সোনারগাঁও ক্রসিং থেকে রাসেল স্কয়ার পর্যন্ত, সিটি কলেজ থেকে রাসেল স্কয়ার, ধানমণ্ডি ২৭ থেকে রাসেল স্কয়ার পর্যন্ত সড়কে যান চলাচল সকাল ৬টা থেকে বন্ধ থাকবে। প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি, মন্ত্রিপরিষদ সদস্য, স্পিকার ও কূটনীতিকরা শ্রদ্ধা নিবেদনের পর জাদুঘর জনগণের জন্য খুলে দেয়া হবে।

এর পরপরই পরিস্থিতি বুঝে যত দ্রুত সম্ভব যান চলাচলের জন্য সড়ক খুলে দেয়া হবে। সকাল সাড়ে ৭টায় বনানীতে ১৫ আগস্টে নিহতদের কবরস্থানে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন ভিআইপিরা।  এ সময় ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরের এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে আবাসিক হোটেল, বাণিজ্যিক স্থাপনা, সন্দেহজন দোকানপাট ও বাসাবাড়ি তল্লাশি চালাতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ ডিএমপি কমিশনার।

পিডিএসও/হেলাল