দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে শেখ হাসিনা-সিরিসেনা

প্রকাশ : ১৪ জুলাই ২০১৭, ১০:৫২ | আপডেট : ১৪ জুলাই ২০১৭, ১১:০৪

অনলাইন ডেস্ক

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হয়েছেন। প্রতিবেশী এই দুই দেশের শীর্ষ নেতার বৈঠকের পর বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে একটি চুক্তি ও ১৩টি সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা রয়েছে।

সিরিসেনা শুক্রবার সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছালে টাইগার গেটে তাকে স্বাগত জানান শেখ হাসিনা। ফুলের তোড়া দিয়ে বরণ করে নেয়া হয় শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টকে। দুই নেতা প্রথমে একান্ত বৈঠকে অংশ নেন। দুই দেশের প্রতিনিধি দলের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পর তাদের উপস্থিতিতেই দুই দেশের মধ্যে চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হবে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, কূটনীতিক ও সরকারি কর্মকর্তাদের ভিসাবিহীন চলাচলের বিষয়ে চুক্তি হওয়ার কথা রয়েছে দুই দেশের। এছাড়া উপকূলীয় জাহাজ চলাচল, অর্থনৈতিক ও কৃষি খাতে সহযোগিতা, উচ্চশিক্ষা, বিনিয়োগ কর্তৃপক্ষ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, উভয় দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মধ্যে, পররাষ্ট্র সেবাবিষয়ক ইন্সটিটিউট, বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘বিস’ ও শ্রীলঙ্কার এলকেআইআইআরএসএস’র মধ্যে এবং রেডিও, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র, দুদেশের মান নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠান, সংবাদ সংস্থা এবং চট্টগ্রাম বিজিএমইএ ফ্যাশন ইন্সটিটিউট ও শ্রীলঙ্কা টেক্সটাইল ও অ্যাপারেল ইন্সটিটিউটের মধ্যে সহযোগিতা বাড়াতে বাকি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকগুলো হবে।  

দুই পক্ষই আশা করছে, শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের এই সফর পারস্পারিক সহযোগিতার ক্ষেত্রে নতুন সুযোগ তৈরি করবে। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে সহযোগিতা বাড়ানোর ক্ষেত্রগুলো নিয়ে আলোচনা হবে জানিয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সেদিন বলেছিলেন, বর্তমানে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের পরিমাণ মাত্র আট কোটি মার্কিন ডলার। এই বাজার আরও বিস্তৃত করার সুযোগ রয়েছে। মুক্ত বাণিজ্য চুক্তির (এফটিএ) বিষয়েও শ্রীলঙ্কার সঙ্গে আলোচনা হবে বলে সেদিন জানান শাহরিয়ার।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন প্রেসিডেন্ট সিরিসেনা। সেখানে তার সম্মানে দেয়া এক ভোজেও অংশ নেবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সেখানে থাকবেন।

পিডিএসও/হেলাল