করোনা রোগীদের বাসায় চিকিৎসায় বাধা দিলে ব্যবস্থা

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০২০, ২০:০৬ | আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০২০, ২০:১৪

অনলাইন ডেস্ক

সারাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এমন রোগীদের মধ্যে ৩২ শতাংশকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি ৬৮ শতাংশ রোগীই বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এরইমধ্যে বাসায় রেখে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার ক্ষেত্রে বাধার এমন অভিযোগ আসার পর পুলিশ বলছে, কেউ বাধা দিলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে দেশের কোথাও এ ধরনের অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম।

গত বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) তিনি ডিএমপির আট ক্রাইম ডিভিশনকে এমন নির্দেশনা দিয়েছেন। নির্দেশনায় করোনা রোগীদের চিকিৎসা কাজে নিয়োজিত চিকিৎসক ও নার্সদের নিজ নিজ ফ্ল্যাটে থাকতে বাধা এবং তাদের সঙ্গে বিরূপ আচরণের অভিযোগ পেলেও ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, করোনা আক্রান্ত অনেকেই নিজ নিজ বাসা বা ফ্ল্যাটে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বেশ কিছু স্থানে সংশ্লিষ্ট ফ্ল্যাটের অন্য বাসিন্দাদের কাছ থেকে বাধা পাচ্ছেন করোনা আক্রান্ত রোগীরা। আবার করোনার চিকিৎসক, নার্স কিংবা স্বাস্থ্য কর্মীদেরও বাধা দেয়া বা তাদের সঙ্গে খারাপ আচরণের অভিযোগ মিলছে। এসব অভিযোগ পেলে পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন কমিশনার মহোদয়।

ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, করোনা রোগীদের চিকিৎসা যেন ব্যাহত না হয় এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সজাগ থেকে রোগী, চিকিৎসক ও নার্সদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে। কমিশনারের এসব নির্দেশ রাজধানীর ৫০ থানার ওসিদের জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার ডিএমপি কমিশনার গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, সংবাদকর্মী, ব্যাংকারসহ জরুরি সেবায় নিয়োজিত ভাড়াটিয়াদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেয়া হলে যেন পুলিশে ফোন করে জানানো হয়। পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের শুক্রবারের হেলথ বুলেটিনে বলা হয়, দেশে এখন পর্যন্ত এক হাজার ৮৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৭৫ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ৫৮ জন।

পিডিএসও/তাজ