চীনের মতো ওয়ান স্টপ সার্ভিস চান বিশেষজ্ঞরা

প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০২০, ১০:০৯

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনায় ভোগান্তি ও সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে চীনের মতো ওয়ান স্টপ সার্ভিস চালুর আহ্বান বিশেষজ্ঞদের। একই হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহ, পরীক্ষা, ফলাফল এবং ভর্তির সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে রোগী ও চিকিৎসকের নিরাপত্তা মজবুত হবে বলে মত তাদের।

তবে এক্ষেত্রে কোভিড-১৯ নির্দিষ্ট হাসপাতালে টেস্টের সুযোগ বাড়ানোর পাশাপাশি সরকারি ব্যবস্থাপনায় কয়েকটি করপোরেট হাসপাতালকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার তাগিদ বিশ্লেষকদের।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ল্যাবে কোভিড-১৯ এর নমুনা পরীক্ষা শুরুর পর প্রতিদিনই শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে। চীনের মডেলে ফিবার ক্লিনিকে ঝুঁকিপূর্ণদের যাচাই বাছাইয়ের সুযোগ থাকায় সাধারণ রোগী ও চিকিৎসকের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি কমেছে। এছাড়াও স্বশরীরে নমুনা দিয়ে মাত্র ৪ ঘণ্টায় ফল পাওয়ায় ভোগান্তির মাত্রাও কমেছে অনেকটাই।

রোগীর ভোগান্তির মাত্রা কমলেও সংক্রমণের ঝুঁকি পুরোপুরি কমেনি। নির্দিষ্ট হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা এবং একই হাসপাতালেই ভর্তির সুযোগ না থাকায় সংক্রমণের ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

বিএসএমএমইউর ভাইরোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ডা. সাইফ উল্লাহ মুন্সী বরেন, এখন এক জায়গায় টেস্ট হচ্ছে। স্যাম্পল দিয়ে বাড়ি যাচ্ছে। আমরা পরে রিপোর্ট পাই। তখন কর্তৃপক্ষকে জানাই। তারা ব্যবস্থা নেন। কিন্তু এর মধ্যে ওই ব্যক্তি কিন্তু অনেকের সঙ্গে মিশছে। সমস্যা সমাধানে সব ধরনের সুবিধা সংবলিত বেসরকারি হাসপাতালকেও স্বয়ংসম্পূর্ণ করে প্রস্তুত রাখার আহ্বান এই চিকিৎসকের।

জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক আশ্রাফুল হক সিয়াম বলেন, করপোরেট হাসপাতালগুলোতে সব ধরনের সেবা দেওয়া যায়। যদি একটি পুরো হাসপাতালকে কোভিড-১৯ হাসপাতাল ঘোষণা করা যায়। কারণ এদের ল্যাবগুলো উন্নত। আইসিইউসহ সব সুবিধা রয়েছে।

পিডিএসও/তাজ