সারা দেশে স্বাভাবিক হয়ে এসেছে যান চলাচল

প্রকাশ : ২১ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৫১

নিজস্ব প্রতিবেদক

সড়কের নতুন আইনের কিছু গুরুত্বপূর্ণ ধারার সংশোধনী চেয়ে চলমান অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘট উঠিয়ে নিয়েছে মালিক ও শ্রমিক সংগঠনগুলো। গত বুধবার মধ্যরাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফঙ্গ টানা ৪ ঘণ্টা বৈঠকের পর এ ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেন শ্রমিকরা। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সারা দেশে বাস ও ট্রাক চলাচল পর্যায়ক্রমে স্বাভাবিক হয়ে আসে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে আইনটি সাত মাসের জন্য স্থগিত বা পর্যালোচনার জন্য রাখা হয়েছে। এতে সরকার, মালিক ও শ্রমিকপক্ষ সমঝোতায় আসার পর রাস্তায় পরিবহন চালানোর সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। এর পরও সারা দিন দেশের কয়েকটি জেলায় বাস চলাচল বিকাল পর্যন্ত বন্ধ থাকলেও সন্ধ্যানাগাদ শতভাগ যানবাহন রাস্তায় নামে বলে খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে ডিএমপির ট্রাফিক সচেতনতামূলক পক্ষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, পরিবহন চালকদের ৯ দফা দাবি সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। এ দাবিগুলোর মধ্যে কোথাও অসংগতি থাকলে তা যাচাই-বাছাই করে দেখা হবে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর শান্তিনগরে রাজারবাগ পুলিশ লাইনস অডিটোরিয়ামে আয়োজিত ট্রাফিক সচেতনতামূলক পক্ষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘পরিবহন চালক ভাইদের লাইসেন্স দেওয়ার বিষয়ে একটা জটিলতা ছিল। সেটি নিয়ে গত বুধবার রাতে পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তাদের দেওয়া দাবিগুলো নিয়ে আলোচনা করেছি। লাইসেন্স-সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনের জন্য চালকদের একটা সময় দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তারা তাদের লাইসেন্স ঠিক করে নেবেন।’

আইন না মানা আমাদের সংস্কৃতি হয়ে গেছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কেউ আইন মানতে চান না। যদি সবাই আইন মেনে চলেন, তবে কোনো সমস্যা থাকে না। শুধু ট্রাফিক আইন নয়, সব পর্যায়ে সবাই আইন মেনে চললে অপরাধ অনেক কমবে। সব পর্যায়ে আইন মেনে চলার সংস্কৃতি চালু হোক— এটাই আমার চাওয়া।

এদিকে, নতুন সড়ক আইন সংশোধনের দাবিতে পরিবহন শ্রমিকদের অঘোষিত ধর্মঘটের টানা তিন দিন পর বৃহস্পতিবার অধিকাংশ জেলায় বাস চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। ঢাকা, ময়মনসিংহ, মাদারীপুর, হিলিসহ কয়েক জেলায় সকাল থেকেই বাস চলাচল করতে দেখা গেছে। তবে খুলনা, বাগেরহাট, ঝিনাইদহ, কুড়িগ্রাম, টাঙ্গাইলসহ অনেক জেলায় আজ চতুর্থ দিনের মতো বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও বিকালনাগাদ তা স্বাভাবিক হয়ে আসে।

এদিকে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকা অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি প্রত্যাহারের পর বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা থেকে পণ্য পরিবহন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিনিধিরা জানান, গতকাল বুধবার ঢাকা থেকে কম পরিসরে বাস ছেড়ে গেলেও বৃহস্পতিবার চলাচল ছিল স্বাভাবিক।রাজধানীর সবকটি বাসস্ট্যান্ড থেকে দূরপাল্লার সব ধরনের বাস ছেড়ে গেছে।

পিডিএসও/তাজ