পাস হতে পারে ৫টি বিল

বিএনপি ছাড়াই শুরু হচ্ছে আরো একটি অধিবেশন

প্রকাশ : ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০৮:৫৮ | আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১:১৬

সংসদ প্রতিবেদক

নির্বাচিত হওয়ার পরও শপথ নেননি ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত বিএনপির ছয়জন। তাদের ছাড়াই চলতি সংসদের আরো একটি অধিবেশন শুরু হচ্ছে। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আজ বুধবার বিকেল ৫টায় এই অধিবেশন শুরু হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এই অধিবেশন আহ্বান করেছেন। আগামী ১১ জুন শুরু হবে তৃতীয় (বাজেট) অধিবেশন। যে কারণে সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন খুবই সংক্ষিপ্ত হবে। অধিবেশন শুরুর আগে বিকেল ৪টায় কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের কার্যসূচি চূড়ান্ত করা হবে। অধিবেশনটি সর্বোচ্চ ৫ দিন চলতে পারে।

সংসদ সচিবালয়ের তথ্য মতে, অধিবেশনের কার্যতালিকায় সর্বশেষ ২৩ এপ্রিল পর্যন্ত ৫টি বিল জমা পড়েছে। বিলগুলো হচ্ছে বীমা কর্পোরেশন বিল-২০১৯, বাংলাদেশ টেলিভিশন চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল-২০১৯, উদ্ভিদের জাত সংরক্ষণ বিল-২০১৯, প্রাণিকল্যাণ বিল-২০১৯ এবং বাংলাদেশ জাতীয় সমাজকল্যাণ পরিষদ বিল-২০১৯। এছাড়া চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বৃদ্ধিসংক্রান্ত একটি বেসরকারি সিদ্ধান্ত প্রস্তাব উত্থাপনের কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পর নির্বাচন বাতিলের দাবি জানিয়ে শপথ অনুষ্ঠান বর্জন করেন বিএনপির নির্বাচিত ছয়জন। ফলে তাদের আসন ৬টি প্রথম অধিবেশনের মতো এবারও ফাঁকা থাকবে। ৩০ এপ্রিলের মধ্যে শপথ না নিলে ওই আসনগুলোতে পুনর্নির্বাচন হবে। তবে গত অধিবেশনে যোগ না দিলেও এবারের অধিবেশনে যোগ দেবেন গণফোরামের সূর্য প্রতীকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোকাব্বির খান। তিনি এরই মধ্যে শপথ নিয়েছেন। আর প্রথমে শপথ বর্জন করলেও ৭ মার্চ শপথ নিয়ে গত অধিবেশনে যোগদান করেন গণফোরামের আরেক সংসদ সদস্য সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গণফোরামের দুই সদস্যের যোগদানের মধ্য দিয়ে সংসদ আরো প্রণবন্ত হবে। জাতীয় পার্টি সরকারের অংশীদার না হয়ে পুরোপুরি বিরোধী দলের ভূমিকা নেওয়ায় সংসদে তারা আগের থেকেও সরব। ফলে অনেক জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে এই অধিবেশনে আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এর আগে গত ৩০ জানুয়ারি শুরু হওয়া প্রথম অধিবেশন ১১ মার্চ শেষ হয়।

পিডিএসও/হেলাল