বাংলা বর্ষবরণে যোগদান

বাংলাদেশ আমার সেকেন্ড হোম : ভুটানের প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:২৮

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

বাংলাদেশ সফররত ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং পহেলা বৈশাখের আয়োজনে যোগ দিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশকে আমি আমার নিজের দেশের মতো করেই ভাবি। কেননা এই দেশে আমার শিক্ষা জীবনের বড় একটি সময় কাটিয়েছি। ময়মনসিংহ ও ঢাকায় মেডিকেলে পড়ার সুযোগে বাংলাদেশ সম্পর্কে অনেক কিছু জানার সুযোগ হয়েছিল। এখানে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে। বাংলাদেশ আমার দ্বিতীয় বাড়ি।

রোববার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে সুরের ধারার আয়োজনে ‘লিভার আয়ুশ-চ্যানেল আই হাজারো কণ্ঠে বর্ষবরণ ১৪২৬’ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে এমনটাই জানালেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী। তার সন্মানে ভুটানের ভাষার গানও পরিবেশন করা হয়। গানে গানে বর্ষবরণের এই আয়োজনে পরিবেশন করা হয় দলীয় ও একক সংগীত। এতে যোগ দিয়েছিলেন, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর প্রমুখ।

ভূটানের প্রধানমন্ত্রী বাংলা ভাষায় সবাইকে পহেলা বৈশাখের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, এই আয়োজনে উপস্থিত হতে পেরে আমি সত্যিই খুব আনন্দিত। নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি।

এসময় তিনি উপস্থিত সকলকে প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, আপনারা সবাই পান্তা ভাত খায়েছেন। জোরালো কন্ঠে একই সঙ্গে হ্যাঁ সূচক উত্তরও পেয়ে যান লোটে শেরিং।

এ সফরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে যাওয়ার জন্য খুব এক্সাইটেড হয়ে আছেন বলেও যোগ করেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ডাক্তারি পড়াশোনায় সেখানে আমি সাত বছর ছিলাম। তারপর ঢাকায় এফসিপিএস করেছি চার বছর। 

ভূটানের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়া লোটে শেরিং বাংলাদেশ সফরের মধ্য দিয়েই প্রথম বিদেশ সফর শুরু করেছেন। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ এর সাবেক ছাত্র লোটে শেরিং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে ৪ দিনের সফরে শুক্রবার সকালে ঢাকা আসেন।  ২০০৩ সালে ঢাকা ছেড়ে যাওয়ার ১৫ বছর পর ২০১৮ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশী এলামনাই ভুটানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।

পিডিএসও/তাজ