নির্বাচনী শোডাউন বন্ধে ইসির নির্দেশ

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৭:০২ | আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২০:৩৪

অনলাইন ডেস্ক

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালনে নির্বাহী হাকিম ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

মনোনয়ন ফরম নিতে গিয়ে এরই মধ্যে প্রার্থীদের মিছিল, শোভাযাত্রা ও মহড়া শুরু হয়ে গেছে। যা নির্বাচনী আচরণবিধি পরিপন্থী। তাই আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে যেন প্রচার-প্রচারণায় আচরণবিধি লঙ্ঘন না হয়—সে ব্যাপারে নির্দেশ দিয়েছে ইসি। 

এদিকে আচরণবিধি প্রতিপালনে ব্যবস্থা নিতে প্রতি উপজেলায় একজন করে নির্বাহী হাকিম নিয়োগে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে ইসির যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান। সেই সঙ্গে ‘তফসিল ঘোষণার পর প্রার্থী বা তার পক্ষে কোনও ব্যক্তির মিছিল-শোডাউন করা আচরণবিধির লঙ্ঘন’ উল্লেখ করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে পুলিশের মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) কাছে চিঠি পাঠিয়েছে ইসি।

নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দিন আহমেদ বলেন, দলীয়ভাবে নির্বাচনী মনোনয়নপত্র কেনা বা জেলা পর্যায়ে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে যখন নেতাকর্মীরা মনোনয়নপত্র জমা দেবেন তখন যেন কোনও প্রকার শোডাউন না হয়। মিছিল, মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা বা ট্রাক বা পিকআপ ভ্যান ভাড়া করে লোক নিয়ে যাওয়া নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন। তাই চিঠিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং রিটার্নিং কর্মকর্তাদের বলা হয়েছে তারা যেন শোডাউনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়।

এদিকে দলগুলোর কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে ঘিরে চলছে মহড়া। এ ধরনের কর্মকাণ্ড আচরণবিধি লঙ্ঘন। এ বিষয়ে পুলিশকে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, পুলিশ সদর দপ্তর ও ডিএমপি কমিশনারকে চিঠি দেয়া হচ্ছে। তফসিল ঘোষণার পর থেকে ফলাফল গেজেট প্রকাশ পর্যন্ত আচরণবিধি প্রতিপালনের বিষয়ে নজর দেবে কমিশন। প্রতীক পেয়ে বিধি মেনে প্রচারণার সুযোগ রয়েছে।

আচরণবিধিতে বলা হয়েছে, কোনো বাস, ট্রাক, মোটরসাইকেল, নৌযান, ট্রেন বা অন্য কোনও যান্ত্রিক যানবাহনসহ মিছিল কিংবা কোনোরূপ মহড়া করা যাবে না। মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় কোনো ধরনের মিছিল-মহড়া করা যাবে না। জনগণের চলাচল বিঘ্ন করে—এমন কোনও সড়কে জনসভা বা পথসভা করা যাবে না।

পিডিএসও/তাজ