‘এ গাছের ছাল-ও গাছের বাকল সব মিলে ঐক্য তৈরি হয়েছে’

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:১৭ | আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:৩৮

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে গঠিত ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট’ নিয়ে আওয়ামী লীগ কোনো দুশ্চিন্তা করে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘এ গাছের ছাল-ও গাছের বাকল সব মিলে ঐক্য তৈরি হয়েছে।’

সোমবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। 

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‌তাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার প্রয়োজন আছে। তারা যদি ঐক্যবদ্ধ হতে পারে। আর যদি রাজনৈতিকভাবে তারা সাফল্য পায় তাতে কোনো অসুবিধা নেই। তবে একটু লক্ষ্য রাখা দরকার, কারা কারা এক হলো। সেখানে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে, তারা কে-কোন চরিত্রে, কার কোন ধরনের বাচনিক ভঙ্গি, এমনকি মেয়েদের প্রতি কেমন কটূক্তি করতে পারে। এটাও আপনারা দেখেছেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘এ গাছের ছাল ও গাছের বাকল সব মিলে ঐক্য তৈরি হয়েছে। তবুও তারা ভালো কাজ করুক, এটাই চাই। এটা নিয়ে আমার আওয়ামী লীগ কোনো দুচিন্তা করে না। তারা এক হতে পেরেছে এটাই ভালো।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‌‘কারণ স্বাধীনতাবিরোধী, জাতির পিতার হত্যাকারীদের মদদদাতা, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস সৃষ্টি করেছে এবং বাংলাদেশকে দুর্নীতিতে পাঁচ-পাঁচবার চ্যাম্পিয়ান করেছে। এসব সবধরণের জোট মিলে আজ এক হয়েছে। এই ঐক্যকে দেশের মানুষ কিভাবে নেবে সেটাই বড় কথা। কারণ এই জোটে তো এমন লোকজনও আছে যারা নারী সাংবাদিককে নোংরা কথা বলতে পারে- তারা সব এক। এদের চরিত্র সম্পর্কে দেশের মানুষ ভালো জানেন।’

তিনি বলেন, ‘তবে এরকম একটা জোট নিয়ে আমরা কোনো খারাপ কিছু দেখছি না। তারা রাজনৈতিকভাবে জনগণের কাছে বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করুক। যা কিছু যদি অর্জন করতে চায় করুক। কারণ এরাই এমার্জেন্সি ডিক্লিয়ার করা থেকে শুরু করে আমাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের এ্যারেস্ট করা সবই করেছে। সব মিলে এক হয়েছে। আবার এই জোটের অনেকেই আওয়ামী লীগে ছিল। এখন আওয়ামী লীগ থেকে চলে গিয়ে জোট করেছে।’

নির্বাচন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশে সময় মত নির্বাচন হবে। প্রয়োজন হলে নির্বাচনের জন্য সরকারের আকার ছোট করা হতে পারে। 

তিনি বলেন, জোট গঠনের স্বাধীনতা সবার আছে। তবে কারা জোট গঠন করেছে তা আগে দেখতে হবে। ঐকের নামে একটি স্বার্থনেষী মহল জোট গঠন করেছে।

সাম্প্রতিক সৌদি আরব সফর নিয়েই এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী দু'দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত সমঝোতা স্মারক, বাদশাহ সালমান ও ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে তার বৈঠকের কথা তুলে ধরেন। উল্লেখ করেন অন্যান্য কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের কথাও।

পিডিএসও/রিহাব