গ্রেনেড হামলা

রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে কঠোর নিরাপত্তা

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:৪৩ | আপডেট : ১০ অক্টোবর ২০১৮, ১১:৪৩

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আদালত প্রাঙ্গণে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। র‌্যাব, পুলিশ ও সাদা পোশাকের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা পুরো এলাকা নজরদারিতে রেখেছেন।

আজ বুধবার দুপুরে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ১-এ রায় ঘোষণা করা হবে। গ্রেনেড হামলার ঘটনায় আনা পৃথক দুই মামলার রায় ঘোষণা করবেন। প্রায় ১০ বছর বিচারিক কার্যক্রম শেষে গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ১-এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দীন এ রায়ের দিন ধার্য করেন।

গ্রেনেড হামলার প্রধান টার্গেট ছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। শুরু থেকেই নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ভিন্ন খাতে নিতে নানা চেষ্টা করা হয়। ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় নতুন করে তদন্ত শুরু হয়। বেরিয়ে আসে অনেক অজানা তথ্য। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় আনা দুই মামলায় আসামির সংখ্যা ৪৯ জন। এদের মধ্যে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, জঙ্গি মাওলানা তাজউদ্দিন আহমেদসহ ১৮ জন পলাতক রয়েছেন। কারাগারে রয়েছেন বিএনপি নেতা সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, বিএনপি নেতা সাবেক শিক্ষা-উপমন্ত্রী আবদুস সালাম পিন্টুসহ ৩১ জন।

যুক্তিতর্ক শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষ আদালতের কাছে দুই মামলার ৪৯ আসামির সর্বোচ্চ শাস্তির (মৃত্যুদণ্ড) আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী সৈয়দ রেজাউর রহমান বলেছেন, দেশের আপামর জনগণ এই মামলার রায়ের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।

পিডিএসও/হেলাল