‘বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে দেশ অনেক আগেই সিঙ্গাপুরকে ছাড়িয়ে যেত’

মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি এ কথা বলেছেন

প্রকাশ : ২৯ আগস্ট ২০১৮, ২২:৩৯

অনলাইন ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বেঁচে থাকলে দেশ অনেক আগেই হংকং সিঙ্গাপুরকে ছাড়িয়ে যেত বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি।

রাজধানীর কাকরাইলে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশে (আইইডিবি) বুধবার ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত জাতীয় শোক দিবসের দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় মোঃ তাজুল ইসলাম এমপি এই মন্তব্য করেন। সভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। 

বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর জননেত্রী শেখ হাসিনা আর উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে পারেননি। কারণ পরবর্তিতে ক্ষমতায় এসে বিএনপি-জামায়াত জোট বিভিন্ন প্রকল্প বন্ধ করে দেওয়ায় উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত হয়। গত ১০ বছরে শেখ হাসিনার শাসনামলে যে উন্নয়ন হয়েছে, তার ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে আগামী ১৫ বছরের মধ্যেই দেশ হংকং সিঙ্গাপুরকে ছাড়িয়ে যাবে।

দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি মো. অহিদ উল্ল্যাহ মজুমদার। স্বাগত বক্তব্য দেন মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আবদুল কাদের মিলু ও লাকসাম পৌরসভার সাবেক মেয়র মো. মেজর (অব.) হাবিবুর রহমান মজুমদার।

এ ছাড়া আরো বক্তব্য দেন ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ পেশাজীবী সংগঠনের সাবেক সভাপতি ডা. আবদুল্লা মো. তারেক, মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. মিজানুর রহমান মজুমদার, ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উসমান গনি ভূইয়া।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য মো. শাহাদত হোসেন, ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মো. নাছির উদ্দিন ও মো. শাহজাহান ভুইয়া, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য মো. মহসীন খান স্বপন ও জাকির হোসেন, ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ পেশাজীবী পরিষদের সহ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মো. মহিউদ্দিন, ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সম্পাদক মো. হারুন-অর রশিদ, ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ নিউমার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. ওয়াহিদুজ্জামান অপু, ঢাকাস্থ লাকসাম-মনোহরগঞ্জ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতি হাসানুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক এম এ করিম খান, সদস্য আল হেলাল মিয়া চাঁনসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা।

পিডিএসও/তাজ