'নববর্ষে থাকছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা'

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৮, ১৫:৪০

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

বাংলা নববর্ষে রাজধানীতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। তিনি বলেন, পয়লা বৈশাখে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এবারের বৈশাখ উদযাপন ঘিরে কোনো সুনির্দিষ্ট নিরাপত্তার হুমকি নেই বলেও তিনি উল্লেখ করেন। আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিন্টো রোডে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, পয়লা বৈশাখের অনুষ্ঠান ঢাকা মহানগরীতে উন্মুক্ত স্থানে বিকেল ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। তবে রবীন্দ্র সরোবরের অনুষ্ঠান সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলবে। রমনা পার্ক ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকা সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে ত্যাগ করার জন্য নগরবাসীদের তিনি আহবান জানান। 
ডিএমপি কমিশনার বলেন, মঙ্গল শোভাযাত্রার চারপাশে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে, মাঝখানে কেউ এসে শোভাযাত্রায় যোগ দিতে পারবেন না এবং কেউ মুখোশ ও বিজ্ঞাপনী স্টিকার ব্যবহার করতে পারবে না বলে পুলিশ কমিশনার জানান। তবে মুখোশ হাতে ধরে রাখতে পারবেন। নববর্ষের অনুষ্ঠানে ভুভুজেলা ব্যবহার করা যাবে না। এ ছাড়া নিরাপত্তার স্বার্থে কোনো ধরনের ভ্যানিটি ব্যাগ, ট্রলি, ব্যাগ, হাতব্যাগ, নেইলকাটার, দাহ্য বস্তু নিয়ে শোভাযাত্রা বা অনুষ্ঠানে ঢোকা যাবে না। ইভ টিজিং প্রতিরোধে বিশেষ দল নববর্ষের অনুষ্ঠানে কাজ করবে। ছায়ানটের অনুষ্ঠান উপলক্ষে জোরালো নিরাপত্তা দেয়া হবে বলেও তিনি জানান। 
আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, পহেলা বৈশাখ উদযাপন অনুষ্ঠানে ধূমপান করলেই ব্যবস্থা নেবে মোবাইল কোর্ট। আমরা বৈশাখের অনুষ্ঠানগুলো ধূমপান ও ইভটিজিং মুক্ত ঘোষণা করেছি। যদি কেউ এরপরও এ ধরনের ঘটনা ঘটায় তবে ব্যবস্থা নেয়া হবে। তিনি বলেন, বৈশাখের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে শাহবাগ, টিএসসি, রমনা, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, রবীন্দ্র সরোবর, হাতিরঝিলে ডগস্কোয়াড দিয়ে সুইপিং করা হবে। তিনি আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রমনাপার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও পার্শ্ববর্তী এলাকা এবং রবীন্দ্র সরোবরে গাড়ী নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না।

পিডিএসও/মুস্তাফিজ