নেপালের রাজধানীতে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্ত

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৮, ১৫:৩০ | আপডেট : ১২ মার্চ ২০১৮, ১৬:২৬

অনলাইন ডেস্ক

নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুর ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে থাকা যাত্রীদের প্রাণহানিরও আশঙ্কা করা হচ্ছে। আজ সোমবার পার্বত্য শহর কাঠমাণ্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পূর্ব পাশে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমের সূত্রে জানা গেছে। জানা যায়, বিমানটি ঢাকা থেকে রওনা দিয়ে দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডু বিমানবন্দরে পৌঁছায়। বিমানবন্দরে অবতরণকালে বিমানটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। এর পরপরই ত্রিভূবন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ও নেপাল সেনাবাহিনী উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে।

নেপালি সংবাদমাধ্যম কাঠমাণ্ডু পোস্টের এক খবরে বলা হয়, এই দুর্ঘটনায় হতাহতের আশঙ্কা করলেও বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করে এখনও কিছু জানাতে পারেনি। বিমানটিতে কতজন যাত্রী ও ক্রু ছিল তাৎক্ষণিকভাবে তাও জানা যায়নি। ত্রিভূবন বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুরের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, অবতরণের সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। এরপর বিমানবন্দরের কাছেই একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয় এটি। 

খবরে প্রকাশ, নেপালের পার্বত্য শহর কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণকালে বিমানবন্দরের পূর্ব পাশে আছড়ে পড়ে বিমানটি। এসময় দুর্ঘটনাকবলিত বিমানে আগুন ধরে যায়। আর সেই আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে স্থানীয় দমকলকর্মীরা তৎপর হয়।বিধ্বস্ত হওয়ার পর ত্রিভূবন বিমান বন্দরের সব ফ্লাইট স্থগিত করা হয়েছে।

নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব সুরেশ আচার্য্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিমানটিতে ৭১ জন আরোহীর মধ্যে ৬৭ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রু রয়েছেন। দুর্ঘটনাস্থল থেকে ১৭ জনকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

পিডিএসও/মুস্তাফিজ