কোন সময় পানি পান উপকারী

প্রকাশ : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:২৭

অনলাইন ডেস্ক

সুস্থ থাকতে নিয়মিত পর্যাপ্ত পানি পান করা উচিত, এটা কমবেশি সবাই জানেন। তবে পানি পানের কিছু নিয়ম আছে। এগুলো মেনে চললে তুলনামূলকভাবে বেশি উপকার পাওয়া যায়।

যেমন, সকালে ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস পানি পান করলে শরীরে জমে থাকা টক্সিন দূর হয়ে যায়। এতে দিনভর শরীর ফুরফুরে লাগে। তবে এ সময় ঠান্ডা পানি খাওয়া ঠিক নয়। বরং এক গ্লাস হালকা গরম পানি পান করলে উপকার পাবেন। দিনের অথবা রাতের খাবার খাওয়ার আগে এক গ্লাস পানি খান। এতে পেটভর্তি থাকবে। তখন খুব বেশি খাওয়া থেকে বিরত থাকা যাবে।

তাছাড়া খাবার খাওয়ার আধ ঘণ্টা আগে এক গ্লাস পানি পান করলে খাবারের স্বাদও বেশি পাওয়া যায়। অনেক সময় কাজের ফাঁকে বা নিতান্ত অসময়ে খিদে পেয়ে যায়। অনেক সময় শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দিলেও ক্ষুধা অনুভূত হতে পারে। তাই কিছু না খেয়ে প্রথমে এক গ্লাস পানি খেতে পারেন।

ব্যায়াম কিংবা শরীরচর্চার পর শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে। তাই ভারী শরীরচর্চার আগে দু-তিন গ্লাস পানি পান করুন। এতে শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় থাকবে। কিন্তু একবারে বেশি পরিমাণে পানি পান করা ঠিক নয়। এতে পেট ব্যথা হতে পারে।

জ্বর, সর্দি-কাশি হলে বা ছোট-বড় অসুস্থতায় পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি করা উচিত। এতে দেহের টক্সিন দূর হবে। শরীরও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে। শরীর ক্লান্ত হলে কিংবা বিশ্রাম নেওয়ার সময় না থাকলে পানি পান করা উচিত। পানিশূন্যতার কারণে অনেক সময় শরীর ক্লান্ত লাগে। এ সময় পানি পান করলে মস্তিষ্ক সচল থাকবে। সূত্র : স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট

পিডিএসও/তাজ