ঝগড়ায় বাড়ে ভালোবাসা!

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৩৬

অনলাইন ডেস্ক

দাম্পত্য জীবনে ঝগড়াঝাঁটি কারোরই ভালো লাগে না। কারণ ঝগড়া হলেই মনে হয় এই বুঝি সম্পর্কের ইতি। কিন্তু গবেষকরা বলছেন অন্যরকম কথা। তাদের মতে, যেসব জুটির মাঝে বেশি ঝগড়া হয়, তারা একে অপরকে অনেক বেশি ভালোবাসেন।

জরিপে দেখা গেছে, ৪৪ শতাংশ দম্পতি বিশ্বাস করেন যে সপ্তাহে অন্তত একবার ঝগড়া হলে সম্পর্ক সুন্দর এবং দীর্ঘমেয়াদি হয়। এমনকি যেসব জুটি নিয়মিত তর্কে জড়ান, তাদের সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝিগুলো দূর করে ভালোবাসা টিকিয়ে রাখেন তারা।

পরিণত সম্পর্কের লক্ষণ : একটি সম্পর্কে তখনই ঝগড়া হয় যখন সেই সম্পর্কটা পরিণত হয়। প্রিয় মানুষটির উপর অধিকার জন্মালেই অভিমান তৈরি হয়। তবে সারাক্ষণ ঝগড়া করা মানেই সম্পর্ক সুখের হবে তা কিন্তু নয়। একে অপরকে আক্রমণাত্মক কথা না বলে যুক্তিতর্কের মাধ্যমে ভুল বোঝাবুঝিগুলো দূর করে নিতে পারলে সম্পর্ক ভালো থাকে।

সম্পর্কে যত্নশীল : সঙ্গীর প্রতি ভালোবাসা থাকলে এবং সম্পর্কের প্রতি যত্নশীল হলে ঝগড়া হতেই পারে। যার প্রতি ভালোবাসা থাকে না, তার সঙ্গে অভিমানও হয়না। হয়তো আপনার সঙ্গী আপনার মঙ্গলের জন্যই কোনো বিষয়ে তর্ক করছে। তাই বোঝার চেষ্টা করুন আপনার দিক থেকে কোনো ভুল আছে কিনা।

 সহজ হয় যোগাযোগ : হুটহাট এক পশলা রাগারাগির পরে দেখবেন মনটা একেবারেই হালকা হয়ে গেছে। ঝগড়ায় দুজনের মানসিক যোগাযোগ বেড়ে যায়। অনেক চেপে রাখা অভিমান বের হয়ে পড়ে। ফলে দুজনের ভুল বোঝাবুঝি দূর হয়।

যোগাযোগসবসময়েই কি রোদ ভালো লাগে? মাঝে মাঝে মেঘলা আকাশ আর বৃষ্টিরও প্রয়োজন আছে। নাহলে ঝলমলে রোদেলা আকাশ দেখতেও একঘেয়ে লাগে। ঠিক তেমনই সম্পর্কের ক্ষেত্রেও মাঝে মাঝে ঝগড়া হলে একঘেয়েমি কাটে। এছাড়া পড়ে সম্পর্ক আরও মধুর হয়।

পিডিএসও/তাজ