ইন্টারনেট আসক্তি বাড়াবে অসুখ

প্রকাশ : ০১ এপ্রিল ২০১৮, ২০:২৬

ড. মোহিত কামাল

প্রযুক্তির ব্যবহার জীবকে যেমন সহজ করেছে তেমনি প্রযুক্তির আসক্তি ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রযুক্তির অপব্যবহারের কারণে ঘটছে বিভিন্ন বিপত্তি।

বিশেষ করে প্রযুক্তির অপব্যবহারের কারণে শরীর ও মনে বিভিন্ন ধরনের পরিবর্তন হচ্ছে। ঘুমের অনিয়ম, মেজাজ চড়া, ঘন ঘন মাথাব্যথাও শরীরে ব্যথা বেড়ে যাওয়াসহ বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন আপনি। আসুন জেনে নেই প্রযুক্তির অপব্যবহারের কারণে আপনার শরীর ও মনের কী ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

আচরণ : যারা প্রযুক্তি ব্যবহারে আসক্তি হয়ে পড়ে তারা বেশি একা থাকতে পছন্দ করেন। তারা কাউকে সময় দিতে চান না।আসক্তির কালে তাদের আচারণে বিভিন্ন পরিবর্তন দেখা দেয়।

চড়া মেজাজে থাকা : ফেসবুক, মেইল, ইমু, ইউচেট, হটস্পটসহ বিভিন্ন প্রযুক্তি এখন মানুষের দোরগোড়ায়। যোগাযোগের এই মাধ্যমগুলো এখন অনেকের আসক্তিতে পরিণত হয়েছে। আসক্তির কারণে মেজাজ সব সময় চড়া থাকে।

ঘুমের অনিয়ম : রাত জেগে ফেসবুক বা অন্যান্য যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে যারা নিয়মিত সময় দেন তাদের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে এতে কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই। তবে রাত জেগে ইন্টারনেট ব্যবহার নেশায় পরিণত হয়, যা মোটেই ঠিক নয়। সঠিক সময়ে ঘুমানো অবশ্যই রাত জাগা শরীর ও মনের জন্য ক্ষতিকর।

কাজে বিরক্তি : ইন্টারনেটে আসক্তির কারণে অনেক সময় আপনার প্রিয় কাজটিও অনেক বিরক্তির কারণ হয়ে যেতে পারে। যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন তবে তা যেন নেশায় পরিণত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

মাথাব্যথা : অধিক সময় একটানা নেট ব্যবহার আপনার মাথাব্যথার কারণ হতে পারে। কম্পিউটারের আলো চোখের জন্য যেমন ক্ষতিকর তেমনি আপনার মাথাব্যথা হওয়া খুব স্বাভাবিক।

দৃষ্টিশক্তির সমস্যা : কম্পিউটারের আলো চোখের জন্য মারাত্মক ক্ষতির কারণ। একটানা অধিক সময় কম্পিউটারের সামনে বসে থাকলে চোখের সমস্যা হতে পারে।

ওজন বেড়ে যাওয়া : অধিক সময় একটানা বসে অনেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। এতে আপনার ওজন বাড়িয়ে দেবে এতে কোনো সন্দেহ নেই। তাই অধিক সময় বসে থাকা এড়িয়ে চলুন।

পিডিএসও/তাজ