শিশু রমজান হত্যায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৭, ১৫:২৬

অনলাইন ডেস্ক

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে শিশু রমজান সিকদারকে অপহরণ ও হত্যা মামলায় তিন জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

অপরদিকে, শিশুটির লাশ গুমের অপরাধে প্রত্যেক আসামিকে সাত বছর করে কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ নং আদালত এ রায় দেন।

সাজা পাওয়া আসামিরা হলেন- শেরপুরের নকলা উপজেলার ধামনা ধনকুশা গ্রামের মৃত নেয়ামত আলীর ছেলে হামিদুল হক, হামিদুলের বোন আফরোজা ও ফুপাতো ভাই রিপন।

নিহত শিশু রমজান সিকদার নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি এলাকার মৃত ইসমাইল সিকদারের ছেলে। সে জালকুড়ি পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। রমজানের মা মার্জিয়া বেগম এ রায়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা এই রায়ে খুশি নই। আমরা আসামিদের ফাঁসি চেয়েছিলাম। আমরা খুনিদের ফাঁসি চাই। আমরা এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করব।’

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি এলাকার ইসমাঈল হোসেনের ছেলে রমজানকে হামিদুল হক, রিপন ও আফরোজা কৌশলে শেরপুরের নকলা এলাকায় অপহরণ করে নিয়ে যান। পরে তারা মুঠোফোনে ইসমাঈল হোসেনের কাছে ১০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। মুক্তিপণের টাকা না দেওয়ায় আসামিরা গলাটিপে রমজানকে হত্যার পর লাশ গুম করে ফেলেন। এ ঘটনায় রমজানের মা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করেন।

পিডিএসও/রিহাব