ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

প্রকাশ : ০৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:১০ | আপডেট : ০৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:৪৮

অনলাইন ডেস্ক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা  মামলায় ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার নাজমুল হুদা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে ঢাকা বিশেষ জজ আদালত-২-এর বিচারক কে এইচ রুহুল ইমরান তার আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

একই সঙ্গে অসুস্থ মর্মে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন। এ ছাড়া তাকে কারাগারে ডিভিশন প্রদানেরও আদশে দেওয়া হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২ কোটি ৪০ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে সেনা সমর্থিত সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে, ২০০৭ সালের ২১ মার্চ ধানমণ্ডি থানায় নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলাটি করে দুদক। একই বছরের ২৭ আগস্ট বিচারিক আদালতের রায়ে নাজমুল হুদার ৭ বছর এবং স্ত্রী ব্যারিস্টার সিগমা হুদাকে ৩ বছরের কারাদণ্ড দেন।

রায়ের বিরুদ্ধে এই দম্পতি হাইকোর্টে আপিল করেন। এ আপিলের ওপর শুনানি শেষে ২০১১ সালের ২০ মার্চ এক রায়ে হাইকোর্ট তাদের খালাস দেন। হাইকোর্টের এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

পরে শুনানি শেষে ২০১৪ সালের ১ ডিসেম্বর আপিল বিভাগ নতুন করে শুনানির নির্দেশ দেন হাইকোর্টকে। ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ হুদা দম্পতির আপিল খারিজ করে এ রায় ঘোষণা করেন।

সর্বশেষ গেল বছরের ১৮ নভেম্বর হাইকোর্ট ঘুষ গ্রহণের মামলায় সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদাকে বিচারিক আদালতের দেয়া ৭ বছরের কারাদণ্ডের সাজা কমিয়ে ৪ বছর করে রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ করে। এতে তাকে ৪৫ দিনের মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়। ওই সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণ না করলে তাকে গ্রেফতারে কথাও বলা হয়।

পিডিএসও/তাজ