‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ ছবি মুক্তিতে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশ : ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১২:০০

অনলাইন ডেস্ক

আগামীকাল শুক্রবার মুক্তি প্রতীক্ষিত কথিত পুরনো চলচ্চিত্র হিসেবে ‘মাতাল’ ও ‘নায়ক’ নামক দুটি সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শন না করতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন হাইকোর্ট। ছবি দুটির মুক্তি দেয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন মেঘ কন্যা চলচ্চিত্রের প্রযোজক জাহাঙ্গীর কবির।

এ প্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোরওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। একইসঙ্গে রুল দিয়েছেন আদালত। রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ সিনেমা মুক্তির ওপর এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে বলে আদেশে বলা হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ১২ অক্টোবর শুক্রবার ‘মেঘ কন্যা’ ও ‘আসমানি’ নামের দুটি নতুন চলচ্চিত্র মুক্তির কথা। চলচ্চিত্র দুটির পরিচালকও নতুন। প্রায় তিন মাস আগে এ দিনটিতে চলচ্চিত্র দুটি মুক্তির জন্য প্রযোজক সমিতিতে নিবন্ধন করা হয়েছে। হঠাৎ করেই ‘নায়ক’ ও  ‘মাতাল’ নামের দুটি নতুন চলচ্চিত্র কথিত পুরনো চলচ্চিত্র হিসেবে একই দিনে মুক্তির ঘোষণা করা হয়। 

তাদের কথা, চলচ্চিত্র দুটি একটি করে প্রেক্ষাগৃহে আগেই মুক্তি দেয়া হয়েছে। এতে মুক্তির জন্য প্রস্তুতি নেয়া মেঘ কন্যা ও আসমানি চলচ্চিত্র দুটির প্রযোজকেরা তাদের চলচ্চিত্র মুক্তি নিয়ে শঙ্কায় পড়েছেন।

প্রযোজক সমিতির নিয়ম, ঈদ উৎসব ছাড়া একই দিনে সর্বোচ্চ দুটি নতুন চলচ্চিত্র মুক্তি দেয়া যাবে। তবে একই দিন নতুন চলচ্চিত্রের সঙ্গে একাধিক পুরনো চলচ্চিত্র মুক্তিতে বাধা নেই। নিয়মানুযায়ী, চারটি চলচ্চিত্র (দুটি পুরনো ও দুটি নতুন) একই সময়ে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেয়া হলে তাতে সমস্যা নেই। তবে নতুন চলচ্চিত্র পুরনো বানানোর কৌশলটি প্রশ্নবিদ্ধ।

মাতাল একটি নতুন চলচ্চিত্র। কিন্তু একটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেখিয়ে পুরনো হিসেবে মুক্তি পাচ্ছে এটি। এই চলচ্চিত্রের প্রযোজক শরিফ চৌধুরীর দাবি, ৫ অক্টোবর ভোলার রূপসী প্রেক্ষাগৃহে মাতাল মুক্তি দিয়েছেন। এখন নতুন করে ১২ অক্টোবর দেশজুড়ে মুক্তি দিচ্ছেন। ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ নামের দুটি নতুন চলচ্চিত্র কথিত পুরনো চলচ্চিত্র হিসেবে মুক্তি দেয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন মেঘ কন্যা চলচ্চিত্রের প্রযোজক জাহাঙ্গীর কবির।

পিডিএসও/হেলাল