বাগেরহাটে অস্ত্র মামলায় ১০ বছরের জেল

প্রকাশ : ১৯ জুলাই ২০১৮, ১৮:১৩

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে অস্ত্র মামলায় আবু জাফর বাবু ওরফে বরিশাল বাবু (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-২ এবং স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-৩ আদালতের বিচারক মো. জাকারিয়া হোসেন এই রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্ত বাবু বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার জামিরতলা গ্রামের সুলতান হাওলাদারের ছেলে।

তার বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে দায়ের করা ৫ মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। রায়ে আসামি বাবুকে অস্ত্র আইন ১৮৭৮ এর ১৯ (এ) ধারায় ১০ বছর এবং ১৯ (এফ) ধারাায় ৭ বছর সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। রায়ে বিচারক উল্লেখ করেছেন ওই সাজা এই সাথে কার্যকর হবে।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, একটি হত্যা মামলায় ২০১৬ সালের ৩০ জুলাই খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার গুটুদিয়া এলাকা থেকে পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তার স্বীকারোক্তি অনুয়ায়ী, ৩০ জুলাই দিনগত রাতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার জামিরতলা গ্রামে বাবুর বসতবাড়ির একটি কক্ষের মেঝের নিচ দিয়ে ৩৯ ইঞ্জি দৈর্ঘের একটি পাইপগান ও একটি গুলি উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় ৩১ জুলাই মোরেলগঞ্জ থানার তৎকালীন পরিদর্শক (তদন্ত) তারক বিশ্বাস বাদি হয়ে অস্ত্র আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশের তৎকালীন উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাত্তার মোল্লা ওই বছরের ২১ আগস্ট আবু জাফর বাবুর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। আদালত মামলার শুনানিতে ১৪ জন স্বাক্ষির স্বাক্ষগ্রহন শেষে বৃহস্পতিবার ওই সাজার রায় ঘোষনা করেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সরকারি সহকারি কৌঁসুলি (এপিপি) সীতা রানী দেবনাথ  ও আসামি পক্ষে আইনজীবী মো. হেমায়েত হোসেন হাওলাদার।

পিডিএসও/রানা