পরীক্ষা শেষে রিমান্ডে তরিকুল

প্রকাশ : ১৭ জুলাই ২০১৮, ১৮:১৯

অনলাইন ডেস্ক

কোটা সংস্কার আন্দোলনের মামলায় সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সদস্য মো. তরিকুল ইসলামের এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. কায়সারুল ইসলাম এ আসামির জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১০ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক বাহাউদ্দিন ফারুকী সংগঠনটির যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান ও তরিকুল ইসলামের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। ওইদিন ফারুকের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। তবে আসামি তরিকুলের পরীক্ষা থাকায় তার রিমান্ড আবেদনের শুনানি পিছিয়ে ১৭ জুলাই ধার্য করা হয়।

গত ৯ এপ্রিল দিবাগত ভোর রাত ৪টা থেকে হতে বিকেল ৪টার মধ্যে শাহবাগ থানাধীন টিএসসি মোড় হতে দোয়েল চত্বর মোড়ে পুলিশের কাজে বাধা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও জনসাধারণের যানবাহন ভাঙচুরের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করা হয়। এর আগে গত ২ জুলাই তরিকুলকে গ্রেপ্তার করে ৩ জুলাই কারাগারে পাঠায় আদালত।

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ ব্যানারে কয়েক মাস ধরে আন্দোলন করে আসছে একদল শিক্ষার্থী। গত ৮ এপ্রিল কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় আন্দোলনকারীরা রাস্তা বন্ধ করে টায়ার ও আসবাবপত্র জ্বালানোসহ নাশকতা এবং পুলিশকে মারধর ও কর্তব্য কাজে বাধা দেয়।

ওই ঘটনায় শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ভজন বিশ্বাস গত ১০ এপ্রিল মামলাটি দায়ের করে। ওই ঘটনায় আরও দুটি মামলা করে পুলিশ। আর ভিসির বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র সিকিউরিটি অফিসার এসএম কামরুল আহসান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের মামলা করেন। তবে কোনো মামলার এজাহারেই আসামির নাম উল্লেখ নেই। পরে আন্দোলনের মুখে প্রধানমন্ত্রী কোটা বাতিলের ‘ঘোষণা’ দিলেও সরকারি প্রজ্ঞাপন জারী না হওয়ায় কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

পিডিএসও/রিহাব