আজ আদালতে যাবেন খালেদা জিয়া

প্রকাশ : ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০৮:৩৩ | আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০১৮, ১২:৩০

অনলাইন ডেস্ক

দুর্নীতির দুই মামলায় হাজিরা দিতে আজ বুধবার আদালতে যাবেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বেগম জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া জানান, বুধবার বেলা ১১টা নাগাদ তিনি বকশিবাজারে কারা অধিদপ্তরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ ড. মো. আখতারুজ্জামানের আদালতে হাজির হবেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য দিন ধার্য থাকলেও গত তারিখে কেবল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায়ই যুক্তিতর্কের শুনানি হয়েছে আদালতে। এ মামলায় বর্তমানে সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলীর যুক্তিতর্ক উপস্থাপন চলমান রয়েছে। এরআগে অ্যাডভোকেট আব্দুর রেজ্জাক খান ও অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেছেন। এদিকে দিন ধার্য থাকলেও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় এখনো যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরুই হয়নি।

এ মামলা দুটিতে মোট ১০ জন আসামি রয়েছেন। এসব আসামির মধ্যে খালেদা জিয়াই প্রধান আসামি। এরমধ্যে অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াসহ মোট আসামি ছয়জন। অপর পাঁচ আসামি হলেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও খালেদার বড় ছেলে তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান। আসামিদের মধ্যে ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান মামলার শুরু থেকেই পলাতক। বাকিরা জামিনে রয়েছেন।

এ মামলায় সাক্ষ্য দিয়েছেন মোট ৩২ জন। জামিনে থাকা অন্য দুই আসামি জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও মনিরুল ইসলাম খান আত্মপক্ষ সমর্থন করে আদালতে লিখিত বক্তব্য জমা দিয়েছেন। হারিছ চৌধুরী মামলার শুরু থেকেই পলাতক। অপরদিকে চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়াসহ মোট আসামি চারজন। খালেদা ছাড়া অভিযুক্ত অপর তিন আসামি হলেন খালেদা জিয়ার তৎকালীন রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, হারিছ চৌধুরীর তৎকালীন একান্ত সচিব বর্তমানে বিআইডাব্লিউটিএ’র নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান।

পিডিএসও/হেলাল