লন্ডনে বন্ধ হচ্ছে উবার

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৮:৩৮ | আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ২১:১২

অনলাইন ডেস্ক

অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি সেবার নেটওয়ার্ক উবার লন্ডনের রাস্তায় চলাচলের লাইসেন্স হারাচ্ছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে শুক্রবার জানানো হয়, উবারের লাইসেন্স যে আর নবায়ন করা হবে না, তা তাদের জানিয়ে দিয়েছে লন্ডন ট্রান্সপোর্ট অথরিটি। 

এই নিয়ন্ত্রক সংস্থা বলছে, উবারের করপোরেট দায়িত্বশীলতাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বড় ধরনের ঘাটতি রয়েছে, যা নাগরিকদের জন্য নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করতে পারে।  

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, লন্ডনে উবারের লাইসেন্সের মেয়াদ চলতি মাসের শেষেই তামাদি হয়ে যাবে। তবে উবার কর্তৃপক্ষ ট্রান্সপোর্ট অথরিটির এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবে এবং তার নিষ্পত্তির আগ পর্যন্ত লন্ডনে উবারের ট্যাক্সি সেবায় বাধা নেই।    

লাইসেন্স নবায়ন না করার সিদ্ধান্তের বিপক্ষে অবিলম্বে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে উবার কর্তৃপক্ষ। তবে সেখানে তাদের আবেদন না টিকলে তা হবে ৪০ হাজার চালকের জন্য একটি বড় ধাক্কা।

অবশ্য লন্ডনের মেয়র সাদিক খান  ট্রান্সপোর্ট অথরিটির সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, লন্ডনবাসীর জন্য ঝুঁকি তৈরি হলে উবারকে ফের লাইসেন্স দেওয়া হবে ভুল সিদ্ধান্ত।   

এই সেবার জন্য উবারের নিজস্ব কোনো ট্যাক্সি নেই। ব্যক্তিগত গাড়ি আছে এমন যে কেউ অ্যাপ ডাউনলোড করে নিবন্ধনের মাধ্যমে উবারের চালক হয়ে যেতে পারেন। একই অ্যাপ ব্যবহার করে সেবা নেন যাত্রীরা।

যুক্তরাষ্ট্রের স্যান ফ্র্যান্সিসকোভিত্তিক অনলাইন ট্র্যান্সপোর্টেশন নেটওয়ার্ক কোম্পানি উবারের দাবি, বিশ্বের ৭৪টি দেশের ৪৫০টি শহরের মানুষ তাদের অ্যাপ ব্যবহার করে প্রতিদিন গড়ে ৫০ লাখের বেশি বার ট্যাক্সিতে চড়ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন বড় শহরে ব্যাপকভাবে জনপ্রিয় হলেও বিভিন্ন দেশে আইনি জটিলতা ও সমালোচার মুখে পড়তে হয়েছে উবারকে। লন্ডনেও উবারের কাজের ধরন ও শর্ত নিয়ে বিভিন্ন  শ্রমিক ইউনিয়ন, ব্ল্যাক ক্যাবের চালক ও আইনপ্রণেতাদের আপত্তি রয়েছে।  

যুক্তরাজ্যের আগে ডেনমার্ক, হাঙ্গেরিসহ বিভিন্ন দেশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে হারতে হয়েছে উবারকে।

পিডিএসও/রিহাব