রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধে

মিয়ানমার সেনাপ্রধানকে মার্কিন জেনারেলের ফোন

প্রকাশ : ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৮:০৬

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের উপর চলমান নির্যাতন ও গণহত্যা বন্ধের জন্য মিয়ানমারের সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইংকে টেলিফোন করে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন মার্কিন জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ এর চেয়ারম্যান জেনারেল জোসেফ ডানফোর্ড। তিনি বলেন, ‘এই অবস্থা চলতে পারে না।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হেইলি এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সুচিকেই কেবল নয় সেনাবাহিনীকেও রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধে চাপ দিচ্ছে।

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সেনাবাহিনীর বহুদিন ধরে চলমান সংঘর্ষ-সহিংসতা সঙ্কট সমাধানে ২০১৬ সালের আগস্টে গঠিত হয় অ্যাডভাইজরি কমিশন অন রাখাইন স্টেট। জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে ওই কমিশন এক বছরের তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের প্রধান অং সান সু চির কাছে জমা দেয় চলতি বছরের ২৪ আগস্ট।

৬৩ পৃষ্ঠার এই প্রতিবেদন জমা দেয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই ২৪ আগস্ট দিবাগত রাতে ত্রিশটি পুলিশ ও সেনাচৌকিতে রহস্যজনক হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় নিহত হয় নিরাপত্তা বাহিনীর ১২ সদস্য। তারপরই হামলার জন্য রোহিঙ্গা ‘জঙ্গি’দের দায়ী করে জবাব হিসেবে সেনাবাহিনী পুরো অঞ্চলে হত্যাযজ্ঞ শুরু করে।

সেনাবাহিনীর ওই হামলায় এখনও পর্যন্ত হাজারের অধিক মানুষ মারা গেছে, আর প্রাণভয়ে সোয়া চার লাখ রোহিঙ্গা সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। নৌপথে পালিয়ে আসার পথে নৌকাডুবিতেও বাড়ছে মৃতের সংখ্যা।

আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা মনে করেন, আনান কমিশনের রিপোর্ট বাস্তবায়ন না করার উদ্দেশ্যেই মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এই হত্যাকাণ্ড শুরু করে।

পিডিএসও/রিহাব