করোনার প্রভাব সুদূরপ্রসারী হবে : ডব্লিউএইচও

প্রকাশ : ০১ আগস্ট ২০২০, ০৯:৩২ | আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২০, ১১:১৪

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাকে একপ্রকার বিপর্যয় আখ্যা দিয়ে বলেছেন, ভবিষ্যতে এই ভাইরাসের দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব পড়বে।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় শুক্রবার (৩১ জুলাই) অনলাইন প্রেস ব্রিফিংয়ে সংস্থাটির মহাপরিচালক বলেন, এই মহামারির জেরে বিশ্বে যে স্বাস্থ্য সংকট দেখা দিয়েছে তা গত একশ বছরের মধ্যে এমন ঘটনা ঘটেনি। আগামী কয়েক দশক এর প্রভাব বোঝা যাবে।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়, চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এখনও পর্যন্ত বিশ্বে ৬ লাখ ৮২ হাজারের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্ত ১ কোটি ৭৭ লাখেরও বেশি মানুষ। গত কয়েক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, মেক্সিকো এবং ব্রিটেনে সর্বাধিক আক্রান্ত হয়েছে। সংক্রমণ রোধে এখনও পর্যন্ত কোনও কার্যকরি ওষুধ আবিষ্কার করতে পারেনি কেউ। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে করোনার প্রতিষেধক তৈরির চেষ্টা চলছে। এই লক্ষ্যে দিন রাত কাজ করে যাচ্ছে দেড় শতাধিক ওষুধ সংস্থা। বহু সংস্থার দাবি, করোনার ভ্যাকসিন তৈরির কাজ প্রায় শেষ করে ফেলেছে তারা। আগস্টের মাঝামাঝি রাশিয়ার একটি সংস্থা বিশ্বের প্রথম করোনার ভ্যাকসিন বাজারে আনার সরকারি ছাড়পত্র পেতে চলেছে বলে খবরে প্রকাশ। যদিও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ২০২১ সালের প্রথমার্ধের আগে করোনার ভ্যাকসিন বাজারের সহজলভ্য হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম।