জিনজিয়াংয়ে ‘মুসলিম নিপীড়ন’

৪ চীনা কর্মকর্তার ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশ : ১০ জুলাই ২০২০, ১৫:৪১

অনলাইন ডেস্ক

চীনের ৪ কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অভিযোগ, চীন তাদের জিনজিয়াং প্রদেশের সংখ্যালঘু মুসলমানদের মানবাধিকার লংঘন করছে।

পশ্চিমা মানবাধিকার সংগঠনগুলো দীর্ঘদিন ধরেই বেইজিংয়ের বিরুদ্ধে উইঘুর ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অসংখ্য মানুষকে আটক, ধর্মীয় নিপীড়ন ও নারীদেরকে জোর করে বন্ধ্যা করার অভিযোগ করে আসছে।

চীন শুরু থেকেই দূর-পশ্চিমের জিনজিয়াংয়ে মুসলিমদের ওপর নির্যাতন ও নিপীড়নের সব অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সমালোচকদের অনুমান, জিনজিয়াং কর্তৃপক্ষ তাদের পুনঃশিক্ষা কর্মসূচির নামে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে লাখ লাখ সংখ্যালঘু মুসলমানকে বিভিন্ন ক্যাম্পে আটক করে তাদের উপর ধর্মীয় নিপীড়ন চালিয়ে আসছে ও নানান ধরনের হয়রানি করছে।

অন্যদিকে বেইজিং বলছে, এসব ক্যাম্পে আগতদের যে ‘বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ’ দেওয়া হচ্ছে, তা জিনজিয়াংয়ে ‘উগ্রবাদ’ ও ‘বিচ্ছিন্নতাবাদ’ মোকাবিলার জন্য জরুরি।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় যে ৪ চীনা কর্মকর্তার নাম এসেছে, তাদের মধ্যে চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিসি) পলিটব্যুরোর সদস্য চেন কাংগুয়ো আছেন।

জিনজিয়াং জননিরাপত্তা ব্যুরোর পরিচালক ওয়াং মিংশান, সিপিসি জিনজিয়াংয়ের অন্যতম প্রভাবশালী সদস্য জু হাইলুন এবং সাবেক নিরাপত্তা কর্মকর্তা হুয়ো লিউজুনের উপরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ওয়াশিংটন।

মার্কিন প্রশাসনের নতুন এ সিদ্ধান্তের ফলে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ ৪ চীনা কর্মকর্তার সঙ্গে কোনো ধরনের লেনদেন করলে তা অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে। যুক্তরাষ্ট্রে এ কর্মকর্তাদের কোনো সম্পদ থাকলে এখন তাও জব্দ করা যাবে। এ ৪ কর্মকর্তার পাশাপাশি ওয়াশিংটন জিনজিয়াংয়ের নিরাপত্তা ব্যুরোর ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

পিডিএসও/হেলাল