আনলক ওয়ানে মৃত্যু বাড়ছে, জরুরি বৈঠকে মোদি

প্রকাশ : ০১ জুন ২০২০, ১৩:৪২

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ৯০ হাজারের গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি বিশ্বে মোট আক্রান্তের নিরিখে ভারত চলে এসেছে নবম থেকে সপ্তম স্থানে। টপকে গিয়েছে জার্মানি ও ফ্রান্সকে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন আট হাজার ৩৯২ জন। এই বৃদ্ধির জেরে আক্রান্তের নিরিখে রাজ্যগুলির মধ্যে প্রথম সারিতে রয়েছে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি ও গুজরাট। দেশে আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। গত ২৪ ঘণ্টায় দু’হাজার ৪৮৭ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন সেখানে। এ নিয়ে সে রাজ্যে মোট আক্রান্ত ৬৭ হাজার ৬৫৫ জন। এরপরই তামিলনাড়ু। রাজধানী দিল্লিতে ১৯ হাজার ৮৪৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গুজরাটে ১৬ হাজার ৭৭৯ জন। এর ক্রমান্বয়ে রয়েছে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, তেলঙ্গানা, জম্মু ও কাশ্মীর, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, ওড়িশা, আসাম, কেরলা, উত্তরাখণ্ড।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭১ জন। এ নিয়ে রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ৫০১ জন। পশ্চিমবঙ্গে মৃত্যু হয়েছে ৩১৭ জনের। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের হিসাব অনুসারে, সরাসরি করোনার কারণে রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৪৫ জনের। ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে কোমর্বিটিডিতে।

এদিকে, মন্ত্রিসভার সঙ্গে এক জরুরি বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সরকারি সূত্র খবর, ওই বৈঠকে কোনও দেশের জন্যে কোনও ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

জানা গেছে, মন্ত্রিসভার বৈঠকের আগে সুরক্ষাসম্পর্কিত মন্ত্রিপরিষদ কমিটি এবং অর্থনীতিবিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির সঙ্গেও বৈঠক করবেন নরেন্দ্র মোদি। এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে জানা যাচ্ছে যে, সুরক্ষাসংক্রান্ত ওই শীর্ষস্থানীয় বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী লাদাখে চীনের সঙ্গে ভারতের যে অস্থির অবস্থা তৈরি হয়েছে, তা নিয়েই আলোচনা করবেন এবং অর্থনৈতিকবিষয়ক কমিটি লকডাউনের আনলক ওয়ানের পরে ফের একটি অর্থনৈতিক উদ্দীপনা প্যাকেজ দেওয়া যায় কিনা, তা নিয়েই আলোচনা করবেন।

এমনিতেই লকডাউনের কারণে গোটা দেশের অর্থনীতি ধুঁকছে। গত সপ্তাহেই জিডিপিসংক্রান্ত যে তথ্য প্রকাশ হয়েছে তাতে দেখা গেছে যে, গত ১১ বছরের মধ্যে এবারে সবচেয়ে ধীর গতির বৃদ্ধি হয়েছে ভারতের। ভারতীয় অর্থনীতির পাশাপাশি এই সময়ে কাজ হারিয়েছেন দেশের বহু মানুষ। কেন্দ্রের হিসাব অনুসারে, গত এপ্রিল মাসেই ভারতের প্রায় ১২ কোটি মানুষ তাদের চাকরি হারিয়েছেন। এই অবস্থায় করোনাভাইরাসকে সঙ্গে নিয়েই বাঁচতে শিখতে হবে, এমনটাই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। 

পিডিএসও/হেলাল