করোনার থাবা এবার বাঘের শরীরে

প্রকাশ : ০৭ এপ্রিল ২০২০, ১২:২৩

অনলাইন ডেস্ক

করোনা ভাইরাস এবার থাবা বসালো বাঘের শরীরেও। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ব্রোনক্স চিড়িয়াখানার একটি বাঘিনী  এই ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে করোনা আতঙ্ক আরও বেড়ে গেছে। দ্য ওয়াইল্ড লাইফ কনজারভেশন সোসাইটির পরিচালনাধীন ওই চিড়িয়াখানা থেকে এক বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, চার বছর বয়সী একটি মালয়েশিয়ান বাঘিনীর শরীরে ওই সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। নাদিয়া নামের ওই বাঘিনীর শুকনো কাশি হচ্ছিল কিছুদিন ধরেই। বিষয়টি নজরে আসার পর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ তার শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করতে পাঠায়। ওই পরীক্ষার পর বাঘিনীর শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রমাণ মিলেছে। এরপরেই তাকে আলাদা করে রেখে বিশেষ পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

শুধু তাই নয়, ওই চিড়িয়াখানায় উপস্থিত একই প্রজাতির আরও ৬টি বাঘ ও সিংহের মধ্যেও করোনা সংক্রমণের লক্ষণ মিলেছে। এই ঘটনায় নতুন করে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের কপালে।

সিএনবিসি এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কৃষি বিভাগের ন্যাশনাল ভেটেরেনারি সার্ভিসের ল্যাবে এই পরীক্ষা করা হয়েছিল। ইউএসডিএ এর মতে, এই প্রথম কোনো বাঘিনীর শরীরে করোনা সংক্রমণের প্রমাণ পাওয়া গেল। একই রকম লক্ষণ ওই চিড়িয়াখানার অনেক বাঘ এবং সিংহের মধ্যেই দেখতে পাওয়া গেছে।

ইউএসডিএ জানিয়েছে, সম্ভবত চিড়িয়াখানায় পশুদের দেখভাল করা কোনো কর্মীর শরীর থেকেই ওই সংক্রমণ ছড়িয়েছে বাঘিনীটির শরীরে। গত ২৭ মার্চ থেকেই নাদিয়ার নামে বাঘিনীটির শরীরে ওই ভাইরাস সংক্রমণের লক্ষণগুলি দেখা দেয়।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ সমিতির অনুযায়ী, ব্রোনক্স চিড়িয়াখানার পশুগুলির যথেষ্ট ভাল দেখভাল করা হয়। তা সত্ত্বেও দেখা যাচ্ছে সেখানকার বেশ কিছু বাঘ-সিংহ খাবার খেতে চাইছে না, ধুঁকছে। যা নিয়ে আরো চিন্তায় কর্তৃপক্ষ। ওই পশুদের দিকে নজর রাখা হচ্ছে।