সাহায্য চেয়ে মোদিকে ট্রাম্পের ফোন

প্রকাশ | ০৫ এপ্রিল ২০২০, ১২:০৩ | আপডেট: ০৫ এপ্রিল ২০২০, ১২:১৯

অনলাইন ডেস্ক
হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেট সরবরাহের জন্য ভারতের কাছে আর্জি জানিয়েছে আমেরিকা।

হোয়াইট হাউসে করোনাভাইরাস টাস্ক ফোর্সকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনুরোধ জানিয়েছেন আরও বেশি হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন ট্যাবলেটের জন্য। তিনি বলেছেন, মোদির সঙ্গে তার কথা হওয়ার পর ভারত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের মার্কিন অর্ডারের দিকে গভীরভাবে মনোযোগ দিতে চলেছে।

ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনিও ওই ওষুধ খেতে পারেন। তিনি আরও বলেছেন, ভারত এটা প্রচুর পরিমাণে তৈরি করছে। ভারতের কোটি কোটি মানুষের জন্য এটা প্রচুর পরিমাণে দরকার। চিকিৎসার জন্য এই অ্যান্টি-ম্যালেরিয়া ড্রাগ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন চিকিৎসার জন্য কৌশলগত জাতীয় মজুদ থেকে দেওয়া হবে। যে পরিমাণ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন চাওয়া হয়েছে, তা ভারত দিয়ে দিক, আপাতত সেদিকেই তাকিয়ে আমেরিকা।

উল্লেখ্য, ভারত ম্যালেরিয়ারোধী হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন রফতানির বিষয়টি স্থগিত রেখেছে। জানা গেছে, দুই নেতার মধ্যে টেলিফোনে করোনা আক্রান্ত হয়ে আমেরিকার বিপুল প্রাণহানির বিষয়ে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন নরেন্দ্র মোদি।

অন্যদিকে, মার্কিন বিদেশ সচিব মাইকেল পম্পেও’র সঙ্গে আলোচনা করেছেন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। করোনা মোকাবিলায় দুই দেশের যৌথ লড়াইয়ের পরিকল্পনা নিয়ে তাদের মধ্যে কথা হয়েছে।

অন্যদিকে, ভারতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৩৭৪ জন। লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। শেষ ১২ ঘণ্টায় রিপোর্ট অনুসারে আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ২৬১ জন। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৭৭ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১৩ জন। করোনা আক্রান্তের পরিসংখ্যানের পাশাপাশি উদ্বেগ বাড়িয়েছে কেন্দ্রের দেওয়া আরও একটি তথ্য।সাধারণভাবে মনে করা হচ্ছিল বয়স্করাই বেশি সংক্রমণপ্রবণ; কিন্তু কেন্দ্রের তথ্য বলছে, দেশে এখনও পর্যন্ত যারা আক্রান্ত তাদের ৮৩ শতাংশেরই বয়স ৫০-এর নিচে। ২১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যের লোকজনই দেশে এখনও পর্যন্ত সবথেকে বেশি করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন মোট আক্রান্তের ৩৩ শতাংশ। তবে, মৃত্যুর হার সবথেকে বেশি ষাটোর্ধ্বদের মধ্যেই। যদিও আক্রান্তদের মধ্যে তারা ১৭ শতাংশ।

পিডিএসও/হেলাল