দিল্লির তাবলিগ জামাতের ৬৪৭ জন পজিটিভ, আতঙ্ক

প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০২০, ১৮:৩৬

পার্থ মুখোপাধ্যায়

গত দুদিনে দিল্লির নিজামুদ্দিন এলাকার মসজিদে আয়োজিত ধর্মীয় সমাবেশে যোগদানকারীদের মধ্যে ৬৫০ জনের শরীরে ধরা পড়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। শুক্রবার সরকারের পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, গত দুদিনে তাবলিগ জামাতের সমাবেশের সঙ্গে সম্পর্কযুক্তদের মধ্যে ৬৪৭টি করোনা সংক্রমণের ঘটনা সামনে এসেছে। দেশের ১৪টি রাজ্যে এর থেকে সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

মার্চে মার্কায নিজামুদ্দিনের ওই সমাবেশে ভারত ছাড়াও অন্য দেশ থেকেও বহু অভ্যাগতরা যোগ দিয়েছিলেন‌। করোনা সতর্কতার মধ্যেই আয়োজিত হয়েছিল ওই সমাবেশ।সমাবেশের পরে অনেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ভ্রমণ করেন করোনা সতর্কতায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশ সত্ত্বেও। ১৫ মার্চ অনুষ্ঠান শেষের পরেও নিজামউদ্দিন এলাকাতেই থেকে যান অনেকে। জনতার কারফিউয়ের আগের দিন অর্থাৎ ২১ মার্চ ওই মসজিদে ছিলেন ১৭৪৬ জন। যাদের মধ্যে ২১৬ জন বিদেশি ছিলেন। আর গোটা দেশে সেই সময়ে বিদেশ থেকে আসা মেহমান ছিলেন ৮২৪ জন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে জানা গেছে, ওই সমাবেশে সবচেয়ে বেশি অংশগ্রহণকারী এসেছিলেন তামিলনাড়ু থেকে। ওই রাজ্য থেকে এসেছিলেন প্রায় ৫০০ জন। উত্তরপ্রদেশ ইতোমধ্যেই ১৬০ জনকে চিহ্নিত করেছে, যারা ওই ধর্মসভায় অংশগ্রহণ করেছেন। মহারাষ্ট্র থেকে ১০৯, মধ্যপ্রদেশ থেকে ১০৭, বিহার থেকে ৮৬ জন, পশ্চিমবঙ্গ থেকে ৭৩ জন, তেলঙ্গানা থেকে ৫৫ জন, ঝাড়খণ্ড থেকে ৪৬ জন ওই ধর্মসভায় যোগ দিয়েছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

এ ছাড়াও মেঘালয়, ওড়িশা, পঞ্জাব, রাজস্থান, আন্দামান, হিমাচল প্রদেশ থেকেও মানুষ গিয়েছিলেন ওই ধর্মসভায়। আন্দামানে ৯ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ পাওয়া গিয়েছে যারা ওই তাবলিগে অংশ গ্রহণ করেছিলেন। যাদের মধ্যে অনেকেই ইতোমধ্যে দিল্লি থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিজেদের গন্তব্যে ফিরে গিয়েছেন। ফলে সংক্রমণের আশঙ্কাটা বেড়ে গেছে।

পিডিএসও/হেলাল