হিউস্টনে বাংলা বলে মন জিতলেন মোদি

প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:০৭

পার্থ মুখোপাধ্যায়
অনুষ্ঠানে ট্রাম্পের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন নরেন্দ্র মোদি

ভারত-মার্কিন বন্ধুত্বের সেলিব্রেশনের বক্তব্য রাখতে গিয়ে বাংলায় কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় সময় রোববার রাত সাড়ে ১১টায় বক্তব্য শুরু করেন মোদি। তখনই অনুষ্ঠানের শীর্ষক বিশ্লেষণ করতে গিয়ে বাংলায় বলেছেন, সব খুব ভাল।

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছেন, আপনারা যদি জিজ্ঞাসা করেন হাউডি মোদি? আমি বলব, ভারতে সব ভাল আছে। এরপরই ভারতে সব ভাল আছে উক্তিটি একাধিক ভারতীয় ভাষায় বলেছেন। বাংলায় বলেছেন, সব খুব ভাল। ভারতের গৌরবময় বিবিধতার কথা মনে করিয়ে দিয়ে তিনি বলেছেন, ভারতের ভাষাবৈচিত্র্য আমাদের গর্ব। আর বিবিধতার মধ্যে ঐক্যই ভারতীয় গণতন্ত্রের সব থেকে বড় শক্তি। এই বিবিধতাই বিশ্বে ভারতকে অনন্য করে তোলে। প্রত্যেক ভাষাতে কোটি কোটি মানুষ কথা বলেন। আর আমরা প্রতিটি ভাষাকে সম্মান করি। অনুষ্ঠানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পকে জয়যুক্ত করার বার্তা দিয়ে বলে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, অব কি বার ট্রাম্প সরকার।

প্রথমে ইংরেজিতে ভারতের বিশ্বস্ত বন্ধু প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হয়ে জয়ধ্বনি, তার পর হিন্দিতে বলতে উঠে ভারতের অন্তর্নিহিত বৈচিত্র্যের জয়ধ্বনি। রোববার হিউস্টনে হাউডি মোদীর মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রী এই বার্তাই অনাবাসী ভারতীয়দের সামনে রেখেছেন। সেই সঙ্গে নাম না করে পাকিস্তানকে বিঁধে এবং সন্ত্রাস দমনে ট্রাম্পের অঙ্গীকারকে মনে করিয়ে কূটনীতির লড়াইয়েও ভারতকে এগিয়ে দিয়েছেন।

ভারতীয় সময় রাত সাড়ে ১০টার দিকে পৌঁছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এরপরে বেশ কিছু ক্ষণের জন্য হাউডি মোদির মঞ্চ কার্যত পরিণত হয় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আগাম নির্বাচনী প্রচারে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ভারত-বন্ধু হিসেবে তুলে ধরে প্রশস্তি  তো করেছেনই, করমর্দন থেকে আলিঙ্গন, অনুষ্ঠানের শেষে হাত ধরে ঘুরে ঘুরে প্রায় ভিকট্রি ল্যাপে কায়দায় জনতার অভিবাদন গ্রহণ, উষ্ণতার প্রদর্শনীতে বাকি আর কিছুই ছিল না।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বক্তৃতা শুরু করার আগে ইংরেজিতে একটি সংক্ষিপ্ত ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। সেখানে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মুখে অব কি বার ট্রাম্প সরকার স্লোগানের কথা মনে করিয়ে দিয়ে আসন্ন নির্বাচনের প্রচার-সুরও বেঁধে দিয়ে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও তার বক্তৃতায় টেক্সাসে অনাবাসী ভারতীয়দের মঞ্চ থেকে ভোটব্যাঙ্ক বাড়ানোর চেষ্টা করে গিয়েছেন, তার মতো আর কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ভারতের এত ঘনিষ্ঠ ছিল না দাবি করে।

পিডিএসও/হেলাল