স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে মোদি

ভারতে এবার চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ

প্রকাশ : ১৫ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫১ | আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০১৯, ১৫:২১

পার্থ মুখোপাধ্যায়

স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লা থেকে জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে বড়সড় ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিন বাহিনীর সমন্বয়ে একটি নতুন পদ গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। আর্মি, নৌসেনা ও বায়ুসেনার মিলিত প্রধান হিসেবে চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ নামে একটি নতুন পদ গঠন করা হবে বলে ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

৭৩তম স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, আর্মি, নৌসেনা ও বায়ুসেনা—প্রতিরক্ষার তিনটি বাহিনীকেই একসঙ্গে এগোতে হবে। সেই কারণেই তিন বাহিনীর সমন্বয়ে একটি পদ গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এর ফলে তিন বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় আরো বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

১৯৯৯ সালে কার্গিল যুদ্ধের পরেই দেশের প্রতিরক্ষায় কোথায় ঘাটতি রয়েছে তা খতিয়ে দেখতে একটি উচ্চ-পর্যায়ের কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটিই চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ নিয়োগ করার পরামর্শ দিয়েছিল। ২০১২-তেও নরেশচন্দ্র টাস্ক ফোর্স বিষয়টির স্বপক্ষে কথা বলেছিল। 

নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, আমরা সতী আর পণপ্রথার যদি বিলোপ ঘটাতে পারি, তাহলে তিন তালাক কেন পারব না? ১০ সপ্তাহেই তিন তালাকবিরোধী আইন পাস করেছি। আগে মুসলিম বোনেরা তিন তালাকের ভয়ে থাকতেন। তিন তালাক বিল পাসের পর তাদের সেই ভয় কেটেছে। মুসলিম মহিলাদের রক্ষা করতে আইন এনেছি। এটা রাজনীতি নয়, সামাজিক দায়িত্ব পালন। সমস্যা কখনো এড়িয়ে যাই না। আর পুষেও রাখি না।

তেমনই জনসংখ্যা বৃদ্ধি নিয়ে মোদি তার ভাষণে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, যারা ছোট পরিবারের নীতি মেনে চলছেন, তারা দেশের উন্নয়নে অবদান রাখছেন। এটা দেশপ্রেম। জনসংখ্যা বৃদ্ধি দেশের অন্যতম সমস্যা। এই বিষয়ে আলোচনা ও সচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে। জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্র-রাজ্য একযোগে কাজ করতে হবে।

জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী দাবি করেছেন, ৭০ বছর যা হয়নি,৭০ দিনের কম সময়ে সেই সমস্যার সমাধান হয়েছে। বাতিল হয়েছে অনুচ্ছেদ ৩৭০। জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ বিলোপ প্রসঙ্গে এভাবেই কংগ্রেসকে বিঁধেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বলেছেন, অনুচ্ছেদ ৩৭০ ও ৩৫-এ ধারা অপসারণ করেছে তার সরকার। ৩৭০ বিলোপ সরদার প্যাটেলের স্বপ্নপূরণে বড় পদক্ষেপ। মাত্র ১০ সপ্তাহেই অনুচ্ছেদ ৩৭০ অপসারিত হয়েছে। এবার জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখের গৌরব  ফিরবে। সন্ত্রাস, বিচ্ছিন্নতাবাদী ও পরিবারতন্ত্র—৩৭০ অনুচ্ছেদে শুধু এগুলিই মদদ পেয়েছে। ৩৭০ বিলোপে সবার অধিকার সুরক্ষিত হবে।

পাশাপাশি কংগ্রেসকে কটাক্ষ করে মোদি আরো বলেছেন, ৩৭০ কেন অস্থায়ী করা হয়েছিল? কেন ৩৭০ স্থায়ী করা হয়নি? কারণ কংগ্রেস জানত, যা হয়েছে তা ভুল হয়েছে। ক্ষুদ্র রাজনীতির স্বার্থে বিলোপে সাহস করেনি। আমি দেশের স্বার্থকে রাজনীতির উর্ধ্বে রাখি। আমি দেশের স্বার্থে রাজনীতির ধার ধারি না।

পিডিএসও/হেলাল