প্রধানমন্ত্রীত্ব হারাননি থেরেসা মে

প্রকাশ : ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৬

অনলাইন ডেস্ক
ama ami

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে অনাস্থা ভোটে জিতে যাওয়ায় তাকে প্রধানমন্ত্রীত্ব হারাতে হচ্ছে না। বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়, কনজারভেটিভ পার্টির ওই ভোটে ২০০-১১৭ ব্যবধানে জয়ী হন তিনি।

সব মিলিয়ে ৬৩ শতাংশ ভোট পান থেরেসা মে। আর এতেই পরবর্তী এক বছর নেতৃত্বে থাকার সুযোগ পেলেন। অনাস্থা ভোটে তার বিরুদ্ধে ভোট পড়েছে ৩৭ শতাংশ। বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে কনজারভেটিভ পার্টির ১৯২২ কমিটির চেয়ারম্যান গ্রাম ব্র্যাডি বলেন, ভোটাভুটি জন্য নির্ধারিত সীমা অতিক্রান্ত হয়েছে। এ ধরনের ভোটাভুটির অর্থ হচ্ছে কনজারভেটিভ পার্টির অন্তত ৪৮ জন এমপি মে’র প্রতি অনাস্থা এনে চিঠি দিয়েছে।

থেরেসা মে এই ভোটাভুটিতে হেরে গেলে দলীয়প্রধানের পদ ও প্রধানমন্ত্রীত্ব হারাতে হতো। কিন্তু ফলাফল তার অনুকূলে আসায় আগামী এক বছর তার নেতৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করা যাবে না।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের পরিকল্পিত বিচ্ছেদ নিয়ে সমর্থন আদায়ে মে’র ব্যর্থতার মধ্যেই এই ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। তার দলে ব্রেক্সিটের সমর্থকরা অভিযোগ করেছেন, মে দেশের স্বার্থ রক্ষায় ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছেন।

ভোটাভুটির আগে কনজারভেটিভ দুই এমপি জ্যাকব রিজ-মগ এবং স্টিভ বেকার এক বিবৃতিতে বলেন, যদি এভাবে চলতে থাকে তাহলে থেরেসা মে’র পরিকল্পনা সরকারের পতন ঘটাবে।

বিবৃতিতে তারা আরো বলেন, আমাদের দল এটি মেনে নেবে না। মে’র নেতৃত্বে একটি নির্বাচনে যাওয়ার ইচ্ছা আছে কিনা সে বিষয়ে কনজারভেটিভদের জবাব দিতে হবে। জাতীয় স্বার্থে, তাকে ক্ষমতা ছাড়তে হবে।

পিডিএসও/হেলাল