বিশ্বভারতীতে স্মার্টকার্ড পরিষেবা চালু

প্রকাশ : ২৫ জুলাই ২০১৮, ২১:১৭ | আপডেট : ২৫ জুলাই ২০১৮, ২১:২৭

অনলাইন ডেস্ক

পশ্চিমবঙ্গের শান্তিনিকেতনে রবীন্দ্র ভবনের গ্রন্থাগার এবং সংগ্রহশালা ব্যবহার করার জন্য বিশ্বভারতী চালু করেছে স্মার্টকার্ড পরিষেবা। বিশ্বভারতীর ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সবুজকলি সেন এই কার্ডের উদ্বোধনকালে বলেন, ‘গবেষকরা যাতে রবীন্দ্র ভবনের ভিতরে থাকা সব বই এবং পাণ্ডুলিপি বেশি করে ব্যবহার করতে পারেন তার জন্য এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

বিশ্বভারতীর পক্ষ থেকে এই স্মার্টকার্ড আমাকে প্রথম তুলে দেওয়া হয়। এই নতুন ব্যবস্থায় রবীদ্র অনুরাগীরা বিশেষভাবে উপকৃত হবেন। বিশ্বভারতী সূত্রে জানা গেছে, এবার থেকে একটি স্মার্টকার্ড ইস্যু হলে তার মেয়াদ থাকবে তিন বছর। গবেষক ছাড়াও শিক্ষার্থীরা এই কার্ডের জন্য ১০০ টাকার বিনিময়ে আবেদন করতে পারেন।

এই কার্ডের মাধ্যমে রবীন্দ্রভবনের ডিজিটাল সংগ্রহশালা, পা-ুলিপি, ফটোকপি সংগ্রহশালার মধ্যে থাকা বিভিন্ন জিনিস ও গ্রন্থাগার ব্যবহার করা যাবে। ফলে গবেষকদের অনেক সুবিধা হবে। আগে টাকার বিনিময়ে মাত্র পাঁচটি ছবি পাওয়া গেলেও এখন ১০০টি পর্যন্ত ছবি পাওয়া যাবে। আগে প্রতিবছর গ্রন্থাগার এবং আর্কাইভের জন্য আলাদা আলাদা কার্ড ইস্যু করতে হতো। প্র

সঙ্গত, আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পরই আশাকরা হয়েছিল দুই এক দিনের মধ্যেই খুলে দেয়া হবে বহুল প্রত্যাশিত ভবনটি। কিন্তু তা এখনও সম্ভব হয়নি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ ও কলকাতার বাংলাদেশ উপ-দূতাবাসের পক্ষে। কিছুদিন আগে অনানুষ্ঠানিক ভাবে শুধুমাত্র লাইব্রেরি কক্ষটিই খুলে দেয়া হয়েছে। প্রায় দুই মাস অতিক্রান্ত হলেও এখনো পুরোপুরি খুলে দেওয়া সম্ভব না হওয়ায় অনেক দর্শনার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

পত্রপত্রিকায় বাংলাদেশ ভবনের উদ্বোধনের খবর পেয়ে প্রতিদিন বহু বিদেশি পর্যটক সেখানে ভিড় করছেন। কিন্তু ভিতরে ঢুকতে না পেরে তারা ফিরছেন একরাশ হতাশা ও ক্ষোভ নিয়ে।

পিডিএসও/তাজ