ভারতেও কোটাবিরোধী আন্দোলনে সহিংসতা

প্রকাশ : ১০ এপ্রিল ২০১৮, ২১:৩৫

অনলাইন ডেস্ক

সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশের তরুণরা। তবে শিক্ষা ও চাকরিতে জাতি এবং সম্প্রদায়ের ভিত্তিতে কোটার বিরোধিতায় আন্দোলন চালিয়ে আসছে ভারতের তরুণরাও। 

সেখানে ‘ভারত বনধ’কে কেন্দ্র করে দেশটির বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। মঙ্গলবার ভারতের বিহার ছাড়াও আরো বেশ কয়েকটি শহরে সহিংসতায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

জানা গেছে, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, বিহার ও রাজস্থানে কোটার বিরোধিতা করে কয়েকটি গোষ্ঠী অবরোধের ডাক দেয়। সেই অবরোধকে কেন্দ্র করে সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে অবরোধ করেছে। রেলপথও অবরোধ করা হয়েছে। এমনকি স্থানীয় বাজারগুলোও বন্ধ রাখা হয়েছে। 

এর আগে, গত ২০ মার্চ দেশটির সুপ্রিম কোর্ট জানায়, তফশিলি জাতি ও উপজাতিদের উপর নির্যাতন বন্ধের যে আইন রয়েছে, তা সরকারি কর্মীদের বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। নিয়োগ কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া এই আইনে কোনো সরকারি কর্মীকে গ্রেপ্তার করা যাবে না। 

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে দলিতদের বেশ কয়েকটি সংগঠন ভারত বন্ধের ডাক দেয়। মধ্যপ্রদেশ, পাঞ্জাব, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড ও উত্তর প্রদেশে দলিতদের প্রতিবাদ উত্তাল রূপ ধারণ করে। ওই বনধে সহিংসতার ঘটনায় অন্তত ১২ জনের প্রাণহানি ঘটে।

পিডিএসও/তাজ