বাবার প্রতি ভালোবাসা

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০২০, ১৫:০৮

পূরবী সাহা, সুইডেন থেকে

প্রতিবছর জুন মাসের তৃতীয় রোববারকে বাবা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। বাংলাদেশ, ভারত, ফ্রান্স, কানাডা, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাবা দিবস পালিত হয়।

বাবা দিবসের সূচনা হয় ১৯১০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সোনোরা স্মার্ট ডুডের হাতে। তিনি ছিলেন আমেরিকার সিভিল ওয়ার বেটেরান ‍উইলিয়াম জ্যাকসন স্মার্টের কন্যা। তিনি অনুধাবন করতেন মা দিবসের পাশাপাশি বাবাদের জন্যও একটা বিশেষ দিন থাকা দরকার। তারপর এই বিষয় নিয়ে তিনি স্পোকেন মিনিস্ট্রেরিয়াল এলিয়েন্সের সাথে কথা বলেন এবং বাবাদের কাজের স্বীকৃতির জন্য একটি দিন ঘোষণার আবেদন করেন। তিনি তার পিতার জন্মদিন ৫ জুনকে বাবা দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবি করেন। তার এ দাবির প্রেক্ষিতে স্পোকেন মিনিস্ট্রেরিয়াল এলিয়েন্স জুন মাসের তৃতীয় রোববারকে বাবা দিবস হিসেবে ঘোষণা করেন। সেই থেকে জুন মাসের তৃতীয় রোববার বাবা দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। ‍

বাবাই প্রতিটি মানুষের জীবনের প্রথম পুরুষ। তিনি ছোটবেলা থেকে জীবনের লক্ষ্যপথ ধরে চলতে শেখান। জীবনে বটবৃক্ষের মতো ছায়া দিয়ে যান এবং প্রতিটি পদক্ষেপে এগিয়ে যেতে সাহায্য করেন।

আসলে বাবাদের ভালোবাসা, শ্রদ্ধা ও শুভেচ্ছা জানানোর জন্য কোনো বিশেষ দিনের প্রয়োজন হয় না। তবু এই দিনটাকে মনে করে কিছু উদযাপন হতেই পারে। যেমন বিভিন্ন ম্যাসেজ, কার্ড, ফুল  অনলাইনে উপহার প্রদানের মাধ্যমে। বাবা দিবসে বলতে চাই—ভাল ও সুস্থ থাকুক পৃথিবীর সকল বাবা।   

পিডিএসও/হেলাল