বিশ্বকাপ প্রতিক্রিয়া

‘পাইছি তোরে’ কনসেপ্ট থেকে বের হয়ে আসুন

প্রকাশ | ৩১ মে ২০১৯, ১৪:১৯

লীনা পারভীন

বিশ্বকাপের ইন-অগারেশন ছিল জানাই ছিল না আমার৷ পরে ইউটিউবে দেখে নিলাম। কেবল অপেক্ষা করছিলাম মূল পর্ব কখন আসবে। রাগ সংগীতের শ্রোতার মতো গান শুরুর অপেক্ষা করতে করতেই দেখি অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষণা দিয়েছে ফ্লিনটপ।

যা হোক, প্রাপ্তি হিসাবে বুঝেছি দ্য গ্রেট হিরো ভিভিয়ান রিচার্ডসকে দেখা অনেক বছর পর৷ এখনো সেই হাসি ও হ্যান্ডসাম লুকেই আছেন তিনি। পেয়েছি প্রিয়মুখ জ্যাক ক্যালিসকে, যাকে দেখলেই আমার সুপারম্যান সিনেমার হিরোর কথা মনে পড়তো৷ আহ! কদ্দিন পর ডেভিড বুনকে দেখলাম। মোটাসোটা যে কজন ক্রিকেটার দুর্দান্ত প্রতাপের সঙ্গে শরীরের ওজনকে উড়িয়ে দিয়ে ব্যাটে ঝড় তুলতেন তিনি তাদের অন্যতম। দেখলাম কুল অনিল কুম্বলেকে, তবে অস্ট্রেলিয়ার গ্ল্যান ম্যাকগ্রা বা স্টিভ ওয়াহ আর সাউথ আফ্রিকার অ্যালান ডোনাল্ডকে দেখলে চোখ জুড়াতো অনেক বেশি। ফ্লিনটপ ওয়াজ সো ক্লাসিক অ্যাজ অ্যা প্রেজেন্টার।

একটা ইস্যু আমি ক্লিয়ার না, আর সেটা হচ্ছে—বাংলাদেশ থেকে কেন জয়া আহসানকে পাঠানো হলো? আসলে ক্রাইটেরিয়া কী ছিল আইসিসির? কেউ যদি জানেন তাহলে জানালে বিষয়টা ক্লিয়ার থাকতাম। বাই দ্য ওয়ে, জয়া নিজে নিজে যাননি। তাকে সিলেক্ট করেছে বলেই গিয়েছে, আর যাওয়া মানেই তাকে সেই লেভেলের পারফর্ম করতেই হবে এমন নয়৷ সিনেবিজের ফারহান আখতারও কিন্তু গিয়েছেন ইন্ডিয়া থেকে৷ তাই জয়ার যাওয়া নিয়ে বা জয়ার ব্যাট ধরা নিয়ে যারা নোংরামি করছেন তারা আসলেই কী জানেন—কোনটা জানার বিষয় আর কোনটা ফানের? প্রশ্ন করলে বিসিবিকে করেন। জয়াকে পচিয়ে লাভ কী? ধরেন আগামীতে আপনার মতো ফেসবুক ক্রিকেট বোদ্ধাদের কাউকে যদি বিসিবি অফার দেয় ওয়ার্ল্ড কাপের মতো আসরে রিপ্রেজেন্ট করতে, বুকে হাত দিয়ে বলেন তো, আপনি যোগ্যতার প্রশ্নে রিজেক্ট করবেন সে অফার? করবেন না৷ করার কোনো উপায়ই নাই৷ তাই ‘পাইছি তোরে’ কনসেপ্ট থেকে বের হয়ে আসেন ভাইয়া ও আপারা৷ তাছাড়া অনেকেই আছেন যারা ক্রিকেট দেখেন না বা খোঁজও রাখেন না কোথায় কী হচ্ছে ক্রিকেট দুনিয়ায়৷ অথচ ফেসবুকের কল্যাণে আজকে জয়ার ভিডিও ও ছবি নিয়ে দুই চার রাকাত কটু কথা লিখে ফেলছেন৷

অ্যানিওয়েজ, সমালোচনা বা অন্যকে পচানো খুব সহজ কিন্তু পরিবর্তনের লক্ষ্যে কাজ করাটা শক্ত৷ তবে আজকালকার ক্রিকেটারদের মারকুটে ভাব থাকলেও কেন জানি না আমাকে টানে না৷ এই যেমন আমার নয়ন জুড়ালো সেই পুরনোরাই৷ আমি কী বুড়ো হয়ে যাচ্ছি তবে? জানি না৷ তবে আজকালকার ঘন ঘন পেশি শক্তির ক্রিকেট আমাকে টানে কম। বাংলাদেশ ছাড়া আর কোনো প্রিয় দল নেই আমার এই কাপে৷

জয় হোক টাইগার বাহিনীর। ম্যাচ বাই ম্যাচ ভালো খেলুক এটাই আশা৷টিম হিসাবে জয়ী হোক৷

পিডিএসও/হেলাল