মহাসড়কে নিথর প্রেম

প্রকাশ | ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৩০

ফজলে রাব্বী, জাবি শিক্ষার্থী

কথা হওয়ার কথা ছিল 
লাইব্রেরির পাশের টং দোকানের চায়ের আড্ডায়,
কথার ফাঁকে চোখের নিমিষে কাপ অদল বদলের ,
বিকেলের সেন্ট্রাল ফিল্ড কিংবা মহুয়া তলায় বসে দেবী মূর্তির অবয়ব আঁকার।

কথা ছিল 
চৌরঙ্গীর ব্যস্ত রাস্তায় দাঁড়িয়ে পোষ্টার পেপারে মোড়ানো প্রণয় বাক্য নিবেদনের,
হাতে হাত রেখে এমএইচের রাস্তায় কিছু মুহূর্ত হাঁটার।

কথা ছিল 
ব্যস্ত জনারণ্যের মধ্য দিয়ে সোঁ সোঁ শব্দে পথ চলার ইচ্ছায় ছুটতে শুরু করা বাসটায় দৌড়ে উঠার , 
সন্ধ্যার ক্যাফেটেরিয়ায় চোখে চোখ রাখার,
চুলের খোঁপায় রক্তলাল জবা ফুল পরিয়ে দেবার ,
আরও কত কথা ছিল!

আবির কথা রাখেনি।
নিথর দেহটা পড়ে ছিল ঢাকা-আড়িচা মহাসড়কের মাঝখানে,
চারপাশে গড়িয়ে পড়ছিল উষ্ণ লাল জল।
অপর্ণার চোখেও জল নেমেছিল সেদিন,
কারো লক্ষ্যে, কারোর বা অলক্ষ্যে,
সেই জলের সাথে গড়িয়ে পড়ছিল রাষ্ট্রের প্রতি চাপা ক্ষোভ।

পিডিএসও/রিহাব