অথবা শরণার্থী

প্রকাশ | ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:১১

ফজলে রাব্বী, জাবি শিক্ষার্থী

-অতিথী, 
কেমন আছেন ? কি সমাচার ?
- আলহামদুলিল্লাহ, সৌজন্য আপনার !
- আহার হয়েছে তো একবার ?
- শুকরিয়া, জনাব মেহেরবান ।

-অতিথী,
এনেছেন কিছু ? উপঢৌকন - উপহার ?  
- দেশের  যা দুরাবস্থা ! জানেন তো বিস্তর ।
-গলার চেইনটা কিন্তু বেশ চমৎকার আপনার ।
 জানেন তো , এ আবার আমাদের পুরোনো রেওয়াজ ।
-হবে তো এতে মহাশয় ?
- চালিয়ে নেয়া যেত এই আর কি ? যা বাজার !

-অতিথী, অনেকদিন তো হলো, এবার না হয় আসুন ?
-জনাব, জানেন তো সেদেশে হিংস্র হায়েনার হাতে প্রাণ !
- কি করি বলুন ? এদিকে আমার যে জীবন সংহার !
- গায়ের জামাটাই না হয় নিন এবার ?
- তা বেশ ! মারহাবা !

- অতিথী, আর তো রাখা যায় না ।
- উপায় তো দেখিনা প্রভু ।
- তবে দেহটাই দাও এবার,
  পাবে ভরপেট আহার ,
  সাথে মাঝরাতের সদাচার ।
-  প্রভু একটুকু দয়া করো ।
- তবে সাইবেরিয়া - আরাকান গিয়ে মরো ।

- মানবতা বলে কি কিছু নেই প্রভু ?
- "মানবতা" ! সে তো দালালের পুঁজি  
   বিকোয় ধনীদের বাজারে 
   বেচাকেনা হয়ে গেলে কে চেনে কাহারে ?
- তবে কি বাঁচাটাই পাপ ?
- কি করে বলি ? সেখানে তো ঈশ্বরের হাত ।

পিডিএসও/রিহাব